৫ মিনিট সময়টাকে আমরা খুব বেশি গ্রাহ্য করি না। ভাবি, ৫ মিনিটে কিবা হতে পারে? অথচ ঘুমানোর আগে মাত্র ৫ মিনিট ব্যয়েই আপনি থাকতে পারবেন সুস্থ ও সুন্দর। জীবনে অতিবাহিত করা প্রতিটা সময়ই মূল্যবান। তাই সময়কে সঠিক ভাবে কাজে লাগাতে হবে। কীভাবে ৫ মিনিটেই থাকতে পারবেন সুস্থ ও সুন্দর?

জেনে নিন কয়েকটি সহজ উপায়-

চুল আঁচড়ান :

ঘুমানোর আগে নিয়মিত ২-৫ মিনিট চুল আঁচড়াবেন। এতে মাথার ত্বকে রক্ত চলাচল বৃদ্ধি পাবে এবং মাথার ত্বক সুস্থ থাকবে। এর সাথে সাথে কমে যাবে চুল পড়া।প্রতিদিন নিয়মিত চুল আঁচড়ালে খুসকিসহ চর্মরোগ হবার সম্ভাবনা কমে যায়। তারসাথে প্রতিদিনের এই সামান্য যত্নে আপনার চুল হয়ে উঠবে ঝলমলে ও সুন্দর।

গ্রিন টি পান করুন :

ঘুমানোর আগে অল্প কিছু সময় ব্যয় করে গ্রিন টি তৈরি করে পান করতে পারেন। এতে করে আপনার শরীরের মেটাবলিজম ঠিক থাকবে ঘুমের সময়েও। গ্রিন টি-তে ক্যাফেইনের পরিমাণ থাকে খুবই কম, তাই ঘুমের মোটেও সমস্যা হয় না। আর এতে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট, যা আপনাকে রাখবে তারুণ্যদীপ্ত।

গোসল করুন :

সারাদিনের ক্লান্তি নিমিষেই দূর হয়ে যাবে মাত্র ৫ মিনিটের ছোট্ট একটা গোসলে। ঘুমানোর আগে কুসুম গরম পানিতে করে নিন গোসল। এতে শরীরের ময়লা ও জীবাণু দূর হয়ে যাবে আর সহজে অসুখ-বিসুখ হবে না। ত্বক থাকবে টান টান ও সহজে ত্বকে বলিরেখা পড়বে না।

ত্বকের যত্ন নিন :

গ্লিসারিন ও সমপরিমাণ গোলাপজল একত্রে মিশিয়ে হাত ও পায়ের গোড়ালি এবং শরীরের উন্মুক্ত জায়গার ত্বকে লাগান। ঘুমানোর আগে মাত্র ৫ মিনিটের যত্নে আপনার ত্বক থাকবে চির কোমল ও সতেজ।

পায়ের যত্ন নিন :

সারাদিনের হাঁটাহাঁটিতে পায়ের ওপর প্রচুর রকম চাপ পড়ে। ঘুমানোর আগে উষ্ণ গরম পানিতে ৫ মিনিট পা ডুবিয়ে রাখুন এবং হালকাভাবে মাসাজ করুন। এতে করে পা এবং শরীরে সমস্ত ক্লান্তি দূর হয়ে যাবে। পেশী গুলো শিথিল হয়ে শরীরে আরাম অনুভূত হবে এবং ঘুম হবে ভাল।

মাথা মালিশ করুন :

ঘুমানোর আগে ৫ মিনিট পুরো মাথা মালিশ করুন। এতে মাথায় ভালোভাবে রক্ত চলাচল করে। ফলে মগজ বা স্নায়ুকেন্দ্র ভালো থাকে ও সহজে চুল পড়ে না ও পাকে না সহজে।

টিপসঃ

সুস্থ ও সুন্দর থাকতে খুব বেশি হৈ হুল্লর করে কোন কিছু বা হতাশ হবার কিছু নেই।

সামান্য কিছু নিয়ম আর কাজ করলেই আপনি থাকতে পারেন সুস্থ ও সুন্দর।

তাই ঝটপট কিছু টেকনিক মনে রেখে চললেই হয়।