ঐতিহ্যবাহী মেজবানি মাংসের সুনাম আছে পুরো দেশ জুড়ে। আক্ষরিক অর্থেই অতুলনীয় একটা খাবার। যিনি একবার খেয়েছেন, আজীবন তিনি এর স্বাদ মনে রাখবেন।মজাদার এই খাবারের “সিক্রেট” রেসিপি কিন্তু বাবুর্চিরা দিতে চান না। তাই মন চাইলেও অনেক সময় খাওয়া খাওয়া করেও খাওয়া হয়ে উঠে না।

ঘরেই যতই রান্না করুন না কেন, ঠিক যেন বাবুর্চির হাতের স্বাদ মেলে না। চিন্তা নেই, এখন থেকে আপনার রান্না মেজবানি মাংসও হবে ঠিক বাবুর্চিদের মতই। চলুন দেখা যাক কিভাবে রান্না করতে হয় মজাদার মেজবানি গরুর মাংস।

মেজবানি গরুর মাংস

যা লাগবে :

গরুর মাংস ৫০০ গ্রাম,
আদা বাটা ১ টেবিল চামচ,
রসুন বাটা ১ চা চামচ,
লাল মরিচ ১ চা চামচ,
পেঁয়াজ মোটা করে কাটা ২ টেবিল চামচ,
লবণ আধা চা চামচ,
তেল ২ টেবিল চামচ,
পেঁয়াজ বেরেস্তা ২ টেবিল চামচ,
গরম মশলা গুঁড়া ১ টেবিল চামচ,
টমেটো পিওরি ২ টেবিল চামচ,
ক্রিম ১ টেবিল চামচ,
কাঠবাদাম পেস্ট ১ টেবিল চামচ,
ঘি ১ টেবিল চামচ,
মেজবানি স্পেশাল মশলা গুঁড়া (এলাচ, দারুচিনি, লং, জৈন, তেজপাতা, গোলমরিচ, মিষ্টি জিরা সমপরিমাণ) আধা চা চামচ।

যেভাবে করবেন :

কড়াইয়ে তেল ও ঘি গরম করে মোটা করে কাটা পেঁয়াজ দিয়ে ভেজে আদা বাটা, রসুন বাটা, লাল মরিচ, লবণ, গরম মশলা গুঁড়া, টমেটো পিওরি, টমেটো সস, ক্রিম, কাঠবাদাম পেস্ট ও মেজবানি স্পেশাল মশলা সামান্য পানি দিয়ে মশলা ভুনে নিন।

ভুনা মশলার সঙ্গে গরুর মাংস মিশিয়ে ৩০ মিনিট রান্না করুন মাংস সিদ্ধ হলে বেরেস্তা মিশিয়ে গরম গরম পরিবেশন করুন।

টিপসঃ

-সব মশলা ভালো করে পেস্ট করতে হবে।

-মাংস ভালো করে পানি ঝড়িয়ে নিতে হবে।

-মাংসের পিস ছোট ছোট হতে হবে।

-সবচেয়ে জরুরি রান্নার পাত্রের ঢাকনা অবধাকনা ভাল করে সিল করে নিতে হবে। ও অল্প জ্বালে রান্না করতে হবে।

-মাংস তাড়াতাড়ি সিদ্ধ করতে কয়েক ফোঁটা পেঁপের আঠা বা কয়েক টুকরো কাঁচা পেঁপে দিতে পারেন।

-চিনি দিলে মাংস তারাতরি সিদ্ধ হয়।

-মাপ মত ঢাকনা দিয়ে চাপ দিয়ে ঢেকে দিন।

-মাংস রান্নার সময় পাত্রে একটা তামার পয়সা ফেলে দিলে মাংস তাড়াতাড়ি সিদ্ধ হয়। বাবুর্চিরা মাংস তাড়াতাড়ি সিদ্ধ করার জন্য এই পদ্ধতি অবলম্বন করেন।

-রান্নার মাঝামাঝি সময়ে লবণ দিন।