চিকেন রোস্ট বা  মুরগির রোষ্ট আমাদের আপ্যায়নের নিত্যদিনের একটা পদ যা পোলাও এর সাথে না দিলেই নয় যেন। আমাদের দেশের সবাই কম বেশি অতিথি আপ্যায়ন করতে পছন্দ করি। অতিথি আপ্যায়ন আমাদের সংস্কৃতির অন্যতম দিক।

তাই আমরা সবাই অতিথি আপ্যায়নের ক্ষেত্রে সবার আগে পোলাও এর সাথে মুরগির রোস্ট খাওয়ানোর কথা বলে থাকি।বিশেষ করে যারা চিকেন পছন্দ করেন,তারা জন এটা ছারা পোলাও মুখেই তুলতে চায়না ।যারা

এই ঈদ এ অতিথি আপ্যায়নে আপনিও পারবেন সহজেই চিকেন রোস্ট এর সাথে অতিথি আপায়ন।চলুন জেনে নেয়া যাক কি ভাবে রান্না করতে হবে মুরগির রোষ্ট।

মুরগির রোষ্ট

যা লাগবে :

মুরগি মাংস ৪ পিস,
আদা বাটা ২ টেবিল চামচ,
পেঁয়াজ বাটা ১ টেবিল চামচ,
মাওয়া ১ টেবিল চামচ,
কাঠবাদাম বাটা ১ টেবিল চামচ,
পেস্তাদানা বাটা ১ টেবিল চামচ,
রসুন বাটা আধা চা চামচ,
জিরা বাটা আধা চা চামচ,
গরম মশলা গুঁড়া আধা চা চামচ,
গোলমরিচ বাটা আধা চা চামচ,
পেঁয়াজ বেরেস্তা আধা কাপ,
টক দই আধা কাপ,
ঘি ২ টেবিল চামচ,
পেস্তা বাদাম, কিশমিশ, আলু বোখারা পরিমাণ মতো,
লবণ পরিমাণ মতো
দুধ আধা কাপ।

যেভাবে করবেন :

প্রথমে মুরগির পিসগুলো ভালোভাবে ধুয়ে পরিষ্কার করে পানি ঝরিয়ে রেখে দিতে হবে।পানি ঝরে যাওয়া মুরগির পিসগুলোতে দই মাখাতে হবে।

মুরগি চার টুকরা করে অর্ধেক টকদই ও লবণ মেখে ২০ মিনিট রেখে দিন। ২০ মিনিট পর কড়াইয়ে ৪ টেবিল চামচ তেল দিয়ে মুরগির টুকরোগুলো হালকা বাদামি করে ভেজে নিন।

পাতিলে তেল ও ঘি দিন। তাতে আদা বাটা, পেঁয়াজ বাটা, কাঠ বাদাম বাটা, পেস্তাদানা বাটা, রসুন বাটা, জিরা বাটা, গরম মশলা গুঁড়া, গোল মরিচ বাটা, পেঁয়াজ বেরেস্তা, ঘি, টক দই, পেস্তা বাদাম, কিশমিশ, আলু বোখারা দিয়ে মশলা ভুনে নিন।

এই ভুনা মশলার মধ্যে ভাজা মাংস দিয়ে তারপর আধা কাপ দুধ দিয়ে রান্না করুন ১০ মিনিট।

১০ মিনিট পর মৃদু আঁচে ঢাকনা দিয়ে রাখুন। ২০ মিনিট পর বের করে পছন্দমত সাজিয়ে গরম গরম পোলাও কিংবা বিরিয়ানির সঙ্গে পরিবেশন করুন সুস্বাদু চিকেন রোস্ট।

অতিথি আপ্যায়নে আর জামেলা পোহাতে হবে না।