মাছের কোনো রেসিপির কথা মনে করলে সবার আগে চিংড়ি মাছের নাম মাথায় আসে। চিংড়ি মাছ সবারই খুব প্রিয় খাবার। নানান ভাবে রান্না করে কিংবা ভেজে চিংড়ি মাছ খেতে ভালোবাসেন অনেকেই। খুবই সাধারণ পদ্ধতির রান্নায় একটু ভিন্ন স্বাদ পেতে চাইলে রাঁধতে পারেন চিংড়ি মাছের মালাইকারি। আর গরম ভাতের সাথে চিংড়ি মাছের মালাইকারি হলে তো কোনো কথাই নেই।

আর চিংড়ি মাছ তো ছোট বড় সবার পছন্দ . . . বাঙালির ভোজন তালিকায় মাছ ছাড়া সম্পন্ন হয়না. . . কথায় আছে মাছে ভাতে বাঙালী . . . তাই আজ আপনাদের জন্য আমাদের আয়োজন চিংড়ি মাছের মালাই কারি . . . খুবই সুশাদু ও মুখরোচক এই চিংড়ি মাছের মালাই কারি।

চিংড়ি মাছের মালাইকারী

যা লাগবে :

মাঝারি সাইজের চিংড়ি মাছ ৫০০ গ্রাম,
পেঁয়াজ বাটা ৫০ গ্রাম,
আদা বাটা এক চা চামচ,
রসুন বাটা এক চা চামচ,
কাঁচামরিচ আস্ত ১০-১২টি,
পেঁয়াজ মিহি করে কাটা এক কাপ,
আস্ত এলাচ ও দারুচিনি একটি করে,
লবণ স্বাদ অনুযায়ী,
হলুদ গুঁড়া এক চা চামচ,
মরিচ গুঁড়া এক চা চামচ,
পানি পরিমানমতো,
নারিকেলের দুধ ৩০০ গ্রাম,
তেজপাতা দুই-তিনটি,
তেল পরিমাণমতো।

যেভাবে করবেন :

প্রথমে চিংড়ি মাছ পরিমাণমতো কুটে ভালোভাবে ধুয়ে পরিষ্কার করে নিতে হবে। পরিষ্কার করা চিংড়ি মাছগুলো আলাদা ঝুরিতে রেখে পানি ঝরান। তারপর একটি মাঝার সাইজ এর কড়াইয়ে তেল গরম করে তাতে মসলা দিতে হবে। প্রথমে পেঁয়াজ, গরম মশলা, তেজপাতা ও পরিমান মত লবণ দিয়ে হালকা ভেজে বা বাদামি করে নিতে হবে।

তারপর একে একে আদা বাটা, রসুন বাটা, হলুদ গুঁড়া, মরিচের গুঁড়া দিয়ে ভালোভাবে মশলা কষিয়ে নিতে হবে ।এরপর এতে নারিকেলের দুধ দিয়ে আবার কষিয়ে নিতে হবে। চিংড়ি মাছ দিয়ে কিছুক্ষণ ভুনা ভুনা করে নিতে হবে। তারপর তাতে অল্প পানি, ও আস্তু কাঁচামরিচ দিয়ে ঢেকে দিতে হবে।

দমে রাখতে হবে প্রায় ১০ মিনিট চুলায় রাখতে হবে। মাছে গ্রেভি থাকতে থাকতেই নামিয়ে নিতে হবে। সুন্দর করে একটা বাটিতে ঢেলে টেবিলে দিয়ে দিন। অর্থাৎ চিংড়ি মাছের মালাইকারি পরিবেশন করুন ভাত বা পোলাও এর সাথে।

চিংড়ি মাছ এর মালাইকারি সহজেই রান্না করে অনাকাঙ্ক্ষিত অতিথি দেরকেও আপ্যায়ন করতে পারেন ঝটপট করে। সময়ও কম লাগবে।