You are here:Home-রেসিপি

ম্যাংগো, বানানা ও চকলেটের ৩ টি স্বাদের ঠাণ্ডা লাচ্ছি

প্রচণ্ড গরমের সাথে সাথে চলছে কাঁচা পাকা আমের সমারোহ। শুধু আমই নয়, নানান রকমের ফলফলাদি পাওয়া যায় এই মধু মাসে। কিন্তু ছোট বড় বেশির ভাগ মানুষ আম খেতে পছন্দ করে। তাই আজকে আমরা জানব কিভাবে আমের সাথে কলা মিশিয়ে লাচ্ছি বানাতে হয়।   লাচ্ছি যেমন সবাই পছন্দ করে তেমনি আমও খেতে পছন্দ করে। তাই আজকে ভিন্নধর্মী লাচ্ছি, ম্যাংগো বানানার লাচ্ছি বানানোর পদ্ধতি জানব। ম্যাংগো বানানার লাচ্ছি উপকরণ আম টুকরা= ৪ পিছ কলা টুকরা=৪ পিছ অরেঞ্জ জুস= ২ কাপ চিনি= ২ চা চামচ বরফ কুঁচি= পরিমাণমতো টকদই= ১ চা চামচ রুহ আফজা= ২ চা চামচ চিনি পানি = ১ কাপ বাদাম কুঁচি=১ চা চামচ   প্রস্তুত প্রণালী ব্লেন্ডার-এ আমের টুকরা, কলার টুকরা, অরেঞ্জ জুস ও চিনি

ম্যাংগো, বানানা ও চকলেটের ৩ টি স্বাদের ঠাণ্ডা লাচ্ছি2020-05-30T20:05:35+06:00

এই গরমের বেস্ট পানীয়, বাদাম বা খেজুরের লাচ্ছি

গরমে বাইরে ঘুরে ঘুরে ক্লান্ত হয়ে গেছেন? ঘরে এসে এক গ্লাস ঠাণ্ডা ঠাণ্ডা লাচ্ছি খেলে কমন হয়? দারুন হয় ব্যাপারটা! তাই খুব ঝামেলায় না গিয়ে বানিয়ে ফেলতে পারেন এক গ্লাস লাচ্ছি। লাচ্ছি সব সময় এক রকম না খেয়ে একটু ভিন্নতা আনতে পারেন। ভিন্নতা আনতে বানাতে পারেন এক নতুন লাচ্ছি। জাফরান এর লাচ্ছি বা খেজুর এর লাচ্ছি। বাসায় হুট করে যদি মেহমানও চলে আসে চটজলদি সমাধানে বানাতে পারেন এই লাচ্ছি। এতে তারা যেমন খেয়েও খুশি হবে, আপনি বানিয়েও খুশি হবেন।জাফরান বা খেজুরের লাচ্ছি একরকম ভিন্ন আইটেমের লাচ্ছি। চলুন জেনে নেয়া যাক কি ভাবে জাফরান লাচ্ছি বানাতে হয়ঃ জাফরান লাচ্ছি রেসিপি উপকরণ এক গ্লাস লাচ্ছিতে লাগবে টক দই = ১.৫ কাপ জাফরান= ১/৪ টেবিল চামচ চিনি=৩টেবিল চামচ

এই গরমের বেস্ট পানীয়, বাদাম বা খেজুরের লাচ্ছি2020-05-26T20:33:10+06:00

বাদামের লাচ্ছি! এই গরমের স্বাস্থ্যসম্মত পানীয়

খুব গরম পরছে।শুধু পানি খেতে আর ইচ্ছে করছে না। তাই এই গরমে চাই একটি স্বাস্থ্যসম্মত পানীয়। যা খেতেও  মজা , পুষ্টিকর আবার স্বাস্থ্যসম্মত। তাই শরীর মন ঠাণ্ডা এবং মনে প্রশান্তি আনতে খেতে পারেন লাচ্ছি। হাতের কাছে যা থাকে তাই দিয়েই বানাতে পারেন বাদামের ঠাণ্ডা লাচ্ছি। বাদামে থাকে প্রোটিন, ক্যালসিয়াম, ভিটামিন ই, ফাইবার, অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট, ওমেগা থ্রি ফ্যাটি অ্যাসিডসহ আরও অনেক পুষ্টিগুণ! আবার যারা ডায়েট চার্ট মেনে চলেন তাদের জন্য এটা একদম পারফেক্ট পানীয়। এতে কোন বাড়তি চিনি ব্যাবহার করা হয় না। তাই যারা বাড়তি চিনি পছন্দ করেন না তারাও এটা নির্ভয়ে খেতে পারেন। তাহলে চলুন দেখা যাক বাদামের লাচ্ছি বানানোর সহজ পদ্ধতি।   বাদাম লাচ্ছি তৈরির নিয়ম উপকরণ বাদাম=১/২ কাপ (কাজুবাদাম, চিনাবাদাম, আখরোট বা পেস্তা) টকদই= ১

বাদামের লাচ্ছি! এই গরমের স্বাস্থ্যসম্মত পানীয়2020-05-26T12:43:09+06:00

দারুচিনি আপেলের সুস্বাদু লাচ্ছি তৈরির সহজ পদ্ধতি

প্রচণ্ড গরম পড়েছে? এক গ্লাস ঠাণ্ডা পানীয় হলে কেমন হয়? আর তা যদি হয় আপনার পছন্দের লাচ্ছি? তা হলে তো কথাই নেই। আপনি এই গরমে প্রশান্তি পাবেন এক গ্লাস ঠাণ্ডা লাচ্ছিতে। শুধু প্রশান্তিই নয়, আপনাকে এনে দিবে হিমশীতল প্রশান্তি। এবার হুট করে কোন মেহমান চলে আসলেও ঝক্কি ঝামেলা করতে হবে না। সহজেই আপনি এই দারুচিনি আপেলের লাচ্ছি দিয়ে মেহমানদারী করতে পারেন। লাচ্ছি অনেক প্রকার ও ফ্লেভারের হয়ে থাকে। বিভিন্ন ফ্লেভারের মধ্যে দারুচিনি আপেলের লাচ্ছি একটি। আপনি চাইলে ঘরে বসেই বানাতে পারেন এই সহজ লাচ্ছি।  এটা খুবই হেলদি এবং সুস্বাদু। তাই আজকে আপনাদের জানাব কি করে বানাতে হয় দারুচিনি আপেলের লাচ্ছি। উপকরণঃ ছোট আপেল= ২টি দারুচিনি গুঁড়া= ১/২ চা চামচ চিনি=১ টেবিল চামচ দই= ১ কাপ

দারুচিনি আপেলের সুস্বাদু লাচ্ছি তৈরির সহজ পদ্ধতি2020-05-27T12:36:32+06:00

জিভে জল আসা মুরগীর কিমা দিয়ে পাঁচমিশালি সবজি

মুরগী খেতে কার না ভাল লাগে? ছেলে বুড়ো থেকে শুরু করে সবাই খেতে পছন্দ করে মুরগীর আইটেম। তাই মুরগীর আইটেমে যদি ভিন্ন তা থাকে তাহলে তো কথাই নেই। যে খাবে বা যে রান্না করে খাওয়াবে তাদের জন্য পোয়া ভার। তাই মুরগীর আইটেম সবসময় এক রকম রান্না না করে একটু ভিন্ন করলে কেমন হয়? অবশ্যই ভাল হয়। তাই মুরগীর আইটেমে ভিন্নতা আনতে আজকে আপনাদের জানাব কিভাবে মুরগীর কিমা দিয়ে পাঁচমিশালি সবজি রান্না করা যায়। সবজি খাওয়া ভাল কিন্তু কেউই সহজে খেতে চায় না। অসহ্য লাগে খেতে।  তাই আপনি সহজেই এক ঢিলে দুই পাখি মারতে পারেন। শব্জিও খাওয়া হবে আবার মুরগিও খাওয়া হবে এক সাথে। আর আপনাকে দুই আইটেম রান্নাও করতে হবে না। আপনার সময় কম লাগবে।

জিভে জল আসা মুরগীর কিমা দিয়ে পাঁচমিশালি সবজি2020-05-06T01:09:18+06:00

রমজান স্পেশাল মজাদার মুরগীর কিমা পোলাও

সারা দিন রোযা থেকে ইফতারিতে একটু কম মশলা যুক্ত খাবার চাই। আবার একটু কম মশলার ভিতরেও একটু মশলা যুক্ত আর মুখরোচক চাই। তাই এই দুই এর মিশেলে দারায় একটু চাল এর ভিতরের আইটেম বা খবার। তাই কিমা পোলাও হতে পারে এর সহজ সমাধান। কারন এতে চাল, মশলা, চিকেন সবই আছে। আর মুখরোচক তো বটেই। কিমা পোলাও তৈরি করতেও সহজ । বেশি ঝক্কি ঝামেলা পোহাতে হয় না। সময়ও অন্যান্য আইটেমের থেকে কম লাগে। কারন এতে আলাদা করে তরকারীর আইটেম না করলেও চলে। খেতেও অন্যান্য রেসিপি থেকে ভিন্ন হওয়ায় ছোট বড় সবাই খেতে পছন্দ করে। তাই চলুন জেনে নেয়া যাক  কিভাবে মুরগীর কিমা পোলাও রান্না করা যায়। মুরগীর কিমা পোলাও তৈরির পদ্ধতি উপকরনঃ পোলাও চাল =২ কাপ

রমজান স্পেশাল মজাদার মুরগীর কিমা পোলাও2020-05-06T00:39:51+06:00

কম সময়ের মজাদার জাফরানি পোলাও এর রেসিপি

পোলাও হচ্ছে চাল দিয়ে তৈরি মশলাযুক্ত মজাদার খাবার। চালকে মসলা দিয়ে ভেজে এর স্বাদ বিভিন্ন ভাবে বিভিন্ন রকমের করা হয়। অঞ্চল ভেদে, মানুষের রুচির ভেদে এর রকম আলাদা হয়। তেমনি আজকে জানব এক ভিন্ন পদের পোলাও। মজাদার জাফরানি পোলাও। খুব সহজেই অল্প আয়োজনেই রান্না করা যায় এই পোলাও। যা আপনার গতানুগতিক পোলাও এর স্বাদ এর থেকে ভিন্ন।যা আপনার রান্না করেও তিপ্তি পাবেন, খেয়েও পাবেন। তাই আজকের রেসিপি মজাদার জাফরানি পোলাও। চলুন জেনে নেয়া যাক কিভাবে তৈরি করতে হয় মজাদার জাফরানি পোলাও।   মজাদার জাফরানি পোলাও তৈরির পদ্ধতিঃ উপকরণ পোলাও এর চাল =৪ কাপ ঘি =১/২ কাপ পেঁয়াজ কুঁচি= ২ টেবিল চামচ দারচিনি টুকরা= কয়েকটা এলাচ =৪ টি লবঙ্গ =২ টি আদা বাটা =২ চা চামচ

কম সময়ের মজাদার জাফরানি পোলাও এর রেসিপি2020-05-01T13:17:40+06:00

ভিন্ন স্বাদের মিষ্টি কুমড়ার আচারি ও সহজ রেসিপি

মিষ্টি কুমড়া যেকোনো কিছু দিয়েই খেতে ভাল লাগে। তা যাই হোক ভাত বা রুটি। মিষ্টি কুমড়ায় বিভিন্ন পুষ্টি উপাদান আছে। ভিটামিন এ, ভিটামিন ই, আয়রনসহ আরও নানা পুষ্টিগুণ আছে। মিষ্টি কুমড়া সারা মাসব্যাপী একটি সবজি। এটা যেমন সারা বছর পাওয়া যায় তেমনি মানুষ খেতেও পারে। মিষ্টি কুমড়া আমরা সব সময় ভাজি, ভর্তা , ঝোল বা তরকারি হিসাবে খাই মাছের সাথে। কিন্তু আজকে জানব ভিন্ন রকমের এক আইটেম, মিষ্টি কুমড়ার আচারি। সারা দেশের এই লকডাউনে বাহিরে চলাচল স্বাভাবিক নয়। তাই আপনি সবজি হিসাবে এটা কিনে অন্যান্য সব্জির তুলনায় বেশি দিন সংরক্ষন রাখতে পারবেন। সহজে সবজির চাহিদাও পূরণ করতে পারবেন। আবার মিষ্টি কুমড়ার দামটাও হাতের নাগালের মধ্যেই থাকে। তাই এই রমযানে হতে পারে আপনার রাতে বা বিশেষ

ভিন্ন স্বাদের মিষ্টি কুমড়ার আচারি ও সহজ রেসিপি2020-04-30T13:03:00+06:00

এই কুরবানি ঈদের বিশেষ রেসিপি পর্দা পোলাও

পর্দা পোলাও হতে পারে এই ঈদের ভিন্নমাত্রার বিশেষ কিছু। কুরবানির এই ঈদে সবাই চায় মাংস একটু ভিন্ন ভিন্ন ভাবে স্বাদ নিতে। তাই আপনি চাইলেই খুব সহজেই পারবেন এই পর্দা পোলাও রান্না করতে এই সহজ রেসিপিএর সাথে। বাসায় মেহমান এলে বা নিজেদেরি জন্য হতে পারে সাধারনের ভিতরে অসাধারান কিছু। চলুন দেখে নেই পর্দা পোলাওয়ের সহজ রেসিপি- পর্দা বিরিয়ানি উপকরণ: মাংস রান্নার উপকরনঃ গরুর মাংস =২ কেজি, বিরিয়ানি মসলা =৩ টেবিল চামচ, আদার রস =সিকি কাপ, রসুনের রস= সিকি কাপ, এলাচি =২টি, দারুচিনি =২ টুকরা, বড় এলাচি =২টি, স্টার অ্যানিস =১টি, লবঙ্গ =৩-৪টি, শাহি জিরা =আধা চা-চামচ, ঘি ও তেল =আধা কাপ, টক দই =আধা কাপ, পেঁয়াজ বেরেস্তা =আধা কাপ, পেঁয়াজকুচি =আধা কাপ, আস্ত কাঁচা মরিচ =১০–১২টি

এই কুরবানি ঈদের বিশেষ রেসিপি পর্দা পোলাও2019-08-08T21:10:42+06:00

ঈদের মজাদার ভিন্ন স্বাদের কাশ্মিরি পোলাও

কাশ্মীরি পোলাও পোলাও আমাদের সবারই পছন্দ। কোন একটা উপলক্ষ পেলেই, সবাই চাই খাবার এ একটু ভিন্নমাত্রা দিতে পোলাও রান্না করে। কিন্তু সেই পোলাও এই যদি আর একটু ভিন্নমাত্রা আনা যায় কমন হবে? অবশ্যই ভাল কিছু হবে। নতুনত্ব আসবে খাবারে, খেতেও একটা নতুনত্ব আসবে। আর সেই নতুনত্ব যদি হয় কাশ্মীরি পোলাও ? তাহলে তো কথাই নেই। অতিথি আপ্যায়ন বা বিশেষ দিনে, কাশ্মিরি পোলাও এনে দিবে খাবারের ভিন্ন স্বাদ এবং মজাদার অনুভুতি।  আর আসছে কোরবানির ঈদে এটা হতে পারে পুরনো স্বাদেই নতুন কিছু। চলুন তাহলে জেনে নেয়া যাক, কিভাবে রান্না করতে হয় মজাদার ভিন্ন স্বাদ এর- কাশ্মিরি পোলাও। উপকরণঃ পোলাওয়ের চাল =২ কাপ, ঘি =আধা কাপ, নারকেল দুধ =১ কাপ, গুঁড়া দুধ =২ টেবিল চামচ, আদাবাটা =১

ঈদের মজাদার ভিন্ন স্বাদের কাশ্মিরি পোলাও2019-08-01T17:31:09+06:00

ইদ স্পেসিয়াল মজাদার শাহজাহানি বিরিয়ানি

যাঁরা ভালোবাসেন রান্না করতে, খাওয়াতে এবং নতুন খাবার চেখে দেখতে।তাদের জন্য হতে পারে একটু ভিন্ন স্বাদের শাহজাহানি বিরিয়ানি।শাহজাহানি বিরিয়ানি খেতে ইচ্ছা হলেও না জানার ফলে বা জানলেও ঘাবড়ানোর ফলে রান্না করা হয় না। তাই তাদের জন্য এই সহজ রেসিপি। শাহজাহানি বিরিয়ানি উপকরণ খাসির সামনের রান ১ কেজি, জাফরান আধা টেবিল চামচ, বাসমতী চাল ৫০০ গ্রাম বা ২ কাপ, টকদই আধা কাপ, ঘি ১ কাপ, পেঁয়াজ স্লাইস ১ কাপ, কাজুবাদাম সিকি কাপ, পেস্তা কুচি সিকি কাপ, কাঠবাদাম কুচি সিকি কাপ, কিশমিশ সিকি কাপ, তিল ৫ টেবিল চামচ, কোরানো নারকেল ৫ টেবিল চামচ, আদা (মিহি ঝুরি) ১ টেবিল চামচ, রসুন কুচি ১ চা-চামচ, জিরা ১ চা-চামচ, লালমরিচের গুঁড়া আধা চা-চামচ, এলাচি ৪টি, দারুচিনি ১ ইঞ্চির ৪ টুকরা,

ইদ স্পেসিয়াল মজাদার শাহজাহানি বিরিয়ানি2019-06-06T23:20:15+06:00

লোভনীয় চিংড়ি মাছের মালাইকারীর সহজ রেসিপি

মাছের কোনো রেসিপির কথা মনে করলে সবার আগে চিংড়ি মাছের নাম মাথায় আসে। চিংড়ি মাছ সবারই খুব প্রিয় খাবার। নানান ভাবে রান্না করে কিংবা ভেজে চিংড়ি মাছ খেতে ভালোবাসেন অনেকেই। খুবই সাধারণ পদ্ধতির রান্নায় একটু ভিন্ন স্বাদ পেতে চাইলে রাঁধতে পারেন চিংড়ি মাছের মালাইকারি। আর গরম ভাতের সাথে চিংড়ি মাছের মালাইকারি হলে তো কোনো কথাই নেই। আর চিংড়ি মাছ তো ছোট বড় সবার পছন্দ . . . বাঙালির ভোজন তালিকায় মাছ ছাড়া সম্পন্ন হয়না. . . কথায় আছে মাছে ভাতে বাঙালী . . . তাই আজ আপনাদের জন্য আমাদের আয়োজন চিংড়ি মাছের মালাই কারি . . . খুবই সুশাদু ও মুখরোচক এই চিংড়ি মাছের মালাই কারি। চিংড়ি মাছের মালাইকারী যা লাগবে : মাঝারি সাইজের চিংড়ি

লোভনীয় চিংড়ি মাছের মালাইকারীর সহজ রেসিপি2019-06-05T14:12:17+06:00

বিফ ও মাটন কোপ্তা পোলাও এর ২ টি মজাদার রেসিপি

দাওয়াত, ঈদ কিংবা অনুষ্ঠান-অতিথি আপ্যায়নে পোলাও থাকবে, এটা মোটামুটি ধরে নেওয়া যায়। আপনি চাইলে এই পোলাওতে আনতে পারেন বৈচিত্র্য।তেমনি বৈচিত্র্যময় ২ টি পোলাও এর আইটেম হল- কোপ্তা পোলাও এবং মাটন পোলাও। কোপ্তা পোলাও ও মাটন পোলাও এর অসাধারন ২ টি রেসিপি দেয়া হলঃ  বিফ কোপ্তা পোলাও যা লাগবে : গরুর মাংসের মিহি কিমা ৫০০ গ্রাম, আদাবাটা ১ চা চামচ, রসুন বাটা ১ চা চামচ, লালমরিচ গুঁড়া আধা চা চামচ, জিরাগুঁড়া আধা চা চামচ, গরম মশলার গুঁড়া আধা চা চামচ, গোলমরিচ গুঁড়া আধা চা চামচ, জায়ফল ও জয়ত্রী গুঁড়া সিকি চা চামচ, লেবুর রস ১ চা চামচ, টমেটো সস ২ চা চামচ, চিনি সামান্য, পেঁয়াজ বেরেস্তা ৩ টেবিল চামচ, ধনেপাতা ও পুদিনা পাতা কুচি ১ টেবিল

বিফ ও মাটন কোপ্তা পোলাও এর ২ টি মজাদার রেসিপি2019-06-05T13:29:30+06:00

মজাদার মোরগ মোসাল্লাম বা আস্ত মুরগীর রোস্ট

খুবই আকর্ষনীয় এবং সুস্বাদু একটি খাবারের নাম মোরগ মোসাল্লাম। ঈদ উৎসবে জামাই বাবাজী আপনার বাড়ী এল আর আপনি তাকে বিশেষ কিছু মনে রাখার মত খাবার খাওয়াবেন না, তা কি করে হয়। কিন্তু রেসিপি জানা না থাকার কারণে সুস্বাদু এই খাবারটি খাওয়ানর সুযোগ হারাচ্ছেন অনেকেই।এই রেসিপিটির মাধ্যমে আপনি ঘরের সাধারণ কড়াই বা হাড়িতেই তৈরি করতে পারবেন মুখরোচক মোরগ মোসাল্লাম। মোরগ মোসাল্লাম যা লাগবে : মোরগ ৩টি (৩ কেজি), আদাবাটা ৩ টেবিল চামচ, রসুনবাটা দেড় টেবিল চামচ. পেঁয়াজ বাটা আধা কাপ, বাদাম বাটা ২ টেবিল চামচ, পোস্তদানা বাটা ২ টেবিল চামচ, টক দই আধা কাপ, মিষ্টি দই আধা কাপ, পেঁয়াজকুচি আধা কাপ, বেরেস্তা আধা কাপ, কিশমিশ বাটা ২ টেবিল চামচ, জায়ফল ও জয়ত্রীগুঁড়া আধা চা চামচ, মাওয়া

মজাদার মোরগ মোসাল্লাম বা আস্ত মুরগীর রোস্ট2019-06-05T11:08:24+06:00

বাড়িতে সহজেই তৈরি করুন লোভনীয় মুরগির রোষ্ট

চিকেন রোস্ট বা  মুরগির রোষ্ট আমাদের আপ্যায়নের নিত্যদিনের একটা পদ যা পোলাও এর সাথে না দিলেই নয় যেন। আমাদের দেশের সবাই কম বেশি অতিথি আপ্যায়ন করতে পছন্দ করি। অতিথি আপ্যায়ন আমাদের সংস্কৃতির অন্যতম দিক। তাই আমরা সবাই অতিথি আপ্যায়নের ক্ষেত্রে সবার আগে পোলাও এর সাথে মুরগির রোস্ট খাওয়ানোর কথা বলে থাকি।বিশেষ করে যারা চিকেন পছন্দ করেন,তারা জন এটা ছারা পোলাও মুখেই তুলতে চায়না ।যারা এই ঈদ এ অতিথি আপ্যায়নে আপনিও পারবেন সহজেই চিকেন রোস্ট এর সাথে অতিথি আপায়ন।চলুন জেনে নেয়া যাক কি ভাবে রান্না করতে হবে মুরগির রোষ্ট। মুরগির রোষ্ট যা লাগবে : মুরগি মাংস ৪ পিস, আদা বাটা ২ টেবিল চামচ, পেঁয়াজ বাটা ১ টেবিল চামচ, মাওয়া ১ টেবিল চামচ, কাঠবাদাম বাটা ১ টেবিল

বাড়িতে সহজেই তৈরি করুন লোভনীয় মুরগির রোষ্ট2019-06-04T21:29:20+06:00

মেজবানি গরুর মাংস রান্নার পারফেক্ট রেসিপি

ঐতিহ্যবাহী মেজবানি মাংসের সুনাম আছে পুরো দেশ জুড়ে। আক্ষরিক অর্থেই অতুলনীয় একটা খাবার। যিনি একবার খেয়েছেন, আজীবন তিনি এর স্বাদ মনে রাখবেন।মজাদার এই খাবারের "সিক্রেট" রেসিপি কিন্তু বাবুর্চিরা দিতে চান না। তাই মন চাইলেও অনেক সময় খাওয়া খাওয়া করেও খাওয়া হয়ে উঠে না। ঘরেই যতই রান্না করুন না কেন, ঠিক যেন বাবুর্চির হাতের স্বাদ মেলে না। চিন্তা নেই, এখন থেকে আপনার রান্না মেজবানি মাংসও হবে ঠিক বাবুর্চিদের মতই। চলুন দেখা যাক কিভাবে রান্না করতে হয় মজাদার মেজবানি গরুর মাংস। মেজবানি গরুর মাংস যা লাগবে : গরুর মাংস ৫০০ গ্রাম, আদা বাটা ১ টেবিল চামচ, রসুন বাটা ১ চা চামচ, লাল মরিচ ১ চা চামচ, পেঁয়াজ মোটা করে কাটা ২ টেবিল চামচ, লবণ আধা চা চামচ,

মেজবানি গরুর মাংস রান্নার পারফেক্ট রেসিপি2019-06-04T17:21:37+06:00

মজাদার ঝটপট ঝাল চিকেন বিরিয়ানির প্রনালি

বিরিয়ানি মানেই মিষ্টি স্বাদের।বিরিয়ানি মানেই বিশেষ কিছু দিনের বা মুহূর্তের বিশেষ কিছু।বিরিয়ানি পছন্দ করে না বা খায় না, এমন মানুষ পাওয়াই দুস্কর।যারা একটু মিষ্টি কম খান বা ঝাল পছন্দ করেন,তাদের জন্য এবার নতুন কিছু হল ঝাল চিকেন বিরিয়ানি। বিরিয়ানি ঝালও হতে পারে? হ্যাঁ বিরিয়ানি ঝালও হতে পারে। বিরিয়ানি রান্নার উপায় হয়তো আমরা জানি কিন্তু ঝাল বিরিয়ানি? চলুন জেনে নেয়া যাক,কিভাবে ঝাল চিকেন বিরিয়ানি রান্না করতে হয়ঃ ঝাল চিকেন বিরিয়ানি উপকরণ : মুরগি দেড় কেজি। বাসমতি বা পোলাওয়ের চাল ১ কেজি। পেঁয়াজ ১ কাপ। আদাবাটা ২ টেবিল-চামচ। রসুনবাটা ২ টেবিল-চামচ। বিরিয়ানির মসলা ৩ টেবিল-চামচ। টক দই ৪ টেবিল-চামচ। মরিচগুঁড়া দেড় টেবিল-চামচ। পুদিনাপাতা বাটা আধা টেবিল-চামচ। ধনেপাতা বাটা ১ টেবিল-চামচ। কাঁচামরিচ বাটা ১ টেবিল-চামচ। সরিষার তেল ১/৪

মজাদার ঝটপট ঝাল চিকেন বিরিয়ানির প্রনালি2019-06-04T16:27:30+06:00

ইলিশ পোলাও ও ইলিশ খিচুরির মজাদার রেসিপি

ইলিশ পোলাও বা ইলিশ খিচুরির নাম শুনলে জিভে পানি আসবে না এমন মানুষ পাওয়া দুস্কর। ইলিশ মাছ এর সাধ অনন্য। ইলিশ মাছ রান্না করা যায় অনেক রকম ভাবে। তেমনি ইলিশ পোলাও ও ইলিশ খিচুরি। চলুন জেনে নেয়া যাক মজাদার ইলিশ পোলাও ও ইলিশ খিচুরি রান্নার সহজ উপায়ঃ ইলিশ পোলাও উপকরণ : পোলাও চাল =৫০০ গ্রাম, ইলিশ মাছ =১২ টুকরো, আদা বাটা =১ চা চামচ, রসুন বাটা =১/২ চা চামচ, টকদই =১ কাপ, লবণ =স্বাদমত, দারুচিনি =২ টুকরা, এলাচ =৪টি, পেঁয়াজ বাটা =৩/৪ কাপ, পেঁয়াজ স্লাইস =আধা কাপ, পানি =৪ কাপ, কাঁচামরিচ =১০টি, চিনি =১ চা চামচ, তেল আধা কাপ। প্রণালি : বড় বড় দুইটা ইলিশ মাছের আঁশ ছাড়িয়ে নিয়ে ধুয়ে মাঝের অংশের টুকরোগুলো নিন। মাছের

ইলিশ পোলাও ও ইলিশ খিচুরির মজাদার রেসিপি2019-04-11T21:04:58+06:00

পহেলা বৈশাখের আয়োজনে ইলিশের ৪ পদ

ইলিশ খেতে ভালোবাসে না এমন বাঙালি নেই বললেই চলে। ইলিশ ছারা যেন পহেলা বৈশাখের সকালটাই সকাল মনে হয় না। তাই পহেলা বৈশাখের সকালে পান্তা-ইলিশ চাই-ই চাই। সেই আয়োজনকে একটু ভিন্ন রকমের স্বাদে সাজাতে ইলিশের ৪ পদের রেসিপি নিচে দেয়া হলঃ সর্ষে ইলিশ উপকরণ : ইলিশ মাছ বড় সাইজের =৮ টুকরা, সাদা শর্ষে বাটা =৪ টেবিল চামচ, তেল =৩ টেবিল চামচ, হলুদ গুঁড়া =১ চা চামচ, মরিচ গুঁড়া =২ চা চামচ, পানি =আধা কাপ, পেঁয়াজ বাটা =আধা কাপ ও লবণ স্বাদমতো। প্রস্তুত প্রণালি : ফ্রাইপ্যানে তেল গরম করে পেঁয়াজ বাটা ছেরে দিন। পেঁয়াজের রঙ হালকা বাদামি হয়ে এলে সব মসলা এক সঙ্গে দিয়ে অল্প পানি দিয়ে মসলাটা কষিয়ে নিন। কষানো মসলার মধ্যে ইলিশ মাছের টুকরোগুলো ছেড়ে

পহেলা বৈশাখের আয়োজনে ইলিশের ৪ পদ2019-04-09T17:20:23+06:00

গায়ে হলুদ এর অনুষ্ঠানের সেকাল – একাল

গায়ে হলুদ বিয়ের অনুষ্ঠানের একটি গুরুত্বপূর্ণ পর্ব । এটি  বাঙালি জাতির কাছে বহু প্রচলিত উৎসব এর একটি। এটি মুলতঃ বিয়ে সম্পর্কিত একটি আচার যা বর ও কনে উভয়ই পালন করে। অনুষ্ঠান বর ও কনের বাড়িতে আলাদা আলাদা ভাবে পালন করা হয়। গায়ে হলুদঃ সেকাল - একাল সেকালঃ =>পূর্বে  দিনে নিজের বারির ছাঁদে বা উঠানে গায়ে হলুদ এর অনুষ্ঠান করা হত। => সামিয়ানা টানিয়ে, সাউন্ড সিস্টেম ভারা করা হত যদি খুব বিত্তশালী হত। => আবার অনেকে নিজেরাই হৈ চৈ করে , গান গেয়ে হলুদ এ মজা করত। => দাদি নানি, পারা পড়শি, বন্ধুরা ,ভাবিরা বনেরা মিলে গান গেয়ে গেয়ে , পাটায় হলুদ বেটে করত। => বর পক্ষের হলুদ নিয়ে এসে কনের গায়ে দিয়া হত। => গায়ে হলুদ এ

গায়ে হলুদ এর অনুষ্ঠানের সেকাল – একাল2019-03-30T22:01:39+06:00
Go to Top