You are here:Home-রোগ-ব্যাধি ও চিকিৎসা

স্মৃতিশক্তি বাড়াতে নিয়মিত খাবারের তালিকায় রাখবেন যে খাবারগুলি

স্মৃতিশক্তি বাড়াতে নিয়মিত খাবারের তালিকায় রাখবেন যে খাবারগুলি স্মৃতি শক্তি আমাদের জন্য কতটা প্রয়োজন তা বলার অবকাশ থাকে না । ভুলে যাওয়া খুবই সাধারণ প্রক্রিয়া। সময়ের সাথে সাথে মানুষের স্মৃতি দুর্বল হয়ে যায়। তবে সময়ের এই প্রভাবকে একটু দীর্ঘায়িত করা যায়। হার্ট, ফুসফুস, পেশির যত্নের সাথে সাথে সুস্থ থাকতে হলে খেয়াল রাখতে হবে আপনার মস্তিষ্কের দিকেও।বয়স বাড়ার সাথে সাথে স্মৃতিশক্তি কমতে থাকে । আবার দেখা যায় অনেক বাচ্চারও স্মৃতি সমস্যা দেখা যায় । সম্প্রতি বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও) বিশ্বজুড়ে ডিমেনশিয়া বা স্মৃতিভ্রংশ বৃদ্ধি সম্পর্কে ভয়ঙ্কর তথ্য প্রদান করেছে। তাদের দেয়া তথ্য মতে, বিশ্বে স্মৃতিশক্তি সমস্যাজনিত রোগে আক্রান্তের সংখ্যা চার কোটি ৭৫ লাখ। প্রতি বছর এই দলে যুক্ত হচ্ছে আরও ৭০ লাখ ৭০ হাজার মানুষ। বর্তমান

স্মৃতিশক্তি বাড়াতে নিয়মিত খাবারের তালিকায় রাখবেন যে খাবারগুলি2019-07-16T16:56:44+06:00

স্তন ক্যান্সার: লক্ষণ, করণীয়, প্রতিরোধ ও প্রতিকার

স্তন ক্যান্সার: লক্ষণ, করণীয়, প্রতিরোধ ও প্রতিকার সারা বিশ্বে নারীমৃত্যুর অন্যতম কারণ হলো স্তন ক্যান্সার। প্রতি ৮ জন মহিলার মধ্যে ১ জনের স্তন ক্যান্সার হতে পারে এবং আক্রান্ত প্রতি ৩৬ জন নারীর মধ্যে মৃত্যুর সম্ভাবনা ১জনের। আমাদের দেশে ক্যান্সারে যত নারীর মৃত্যু হয়, তার অন্যতম কারণ হচ্ছে স্তন ক্যান্সার। প্রতি ৬ মিনিটে একজন নারী আক্রান্ত হয় এবং প্রতি ১১ মিনিটে স্তন ক্যান্সারে আক্রান্ত একজন নারী মারা যায়। কিন্তু এতকিছুর পরেও আমাদের সমাজে স্তন ক্যান্সার নিয়ে রয়েছে পর্যাপ্ত সচেতনতার অভাব। আর এই সচেতনতার অভাবের কারণে অনেকের একেবারে শেষ পর্যায়ে গিয়ে ধরা পড়ছে এটি। তখন মৃত্যুর প্রহর গোনা ছাড়া আর কোনো উপায় থাকে না। অথচ ঘরে বসেই সহজে একজন নারী তার স্তন পরীক্ষা করে নিতে পারেন। এতে

স্তন ক্যান্সার: লক্ষণ, করণীয়, প্রতিরোধ ও প্রতিকার2019-07-05T18:22:51+06:00

ইউরিন ইনফেকশনের লক্ষণ ও প্রতিকার করার উপায়

ইউরিন ইনফেকশনের লক্ষণ ও প্রতিকার করার উপায় বর্তমান আমাদের শারীরিক সমস্যার মধ্যে একটি উল্লেখযোগ্য সমস্যা হচ্ছে ইউরিন ইনফেকশন। এটি নারী পুরুষ উভয়ের হয়ে থাকে। তবে প্রতি দুই জন নারীর মাঝে একজনকে পাওয়া যায় যার ইউরিন ইনফেকশন আছে। মানুষের শরীরের ২টি কিডনি, ২টি ইউরেটার, ১টি ইউরিনারি ব্লাডার (মূত্রথলি) এবং ইউরেথ্রা (মূত্রনালি) নিয়ে মূত্রতন্ত্র গঠিত। আর এই রেচনন্ত্রের যেকোনো অংশে যদি জীবাণুর সংক্রমণ হয় তাহলে সেটাকে ‘ইউরিনারি ট্র্যাক্ট ইনফেকশন’ বলা হয়। কিডনি, মূত্রনালি, মূত্রথলি বা একাধিক অংশে একসঙ্গে এই ধরণের সংক্রমণ হতে পারে। এই সংক্রমণকেই সংক্ষেপে ইউরিন ইনফেকশন বলা হয়। সাধারণত এই সমস্যাটি মহিলা ও পুরুষ উভয়ের মধ্যে হলেও মহিলাদের ইউরিন ইনফেকশনে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা অনেক বেশি। ইউরিন ইনফেকশন ও তার প্রতিকার সম্পর্কে জেনে নিন। ইউরিন ইনফেকশনের

ইউরিন ইনফেকশনের লক্ষণ ও প্রতিকার করার উপায়2019-04-06T19:05:08+06:00

দাঁতের ব্যাথা উপশমের কিছু কার্যকারী উপায়

দাঁতের ব্যাথা উপশমের কিছু কার্যকারী উপায় দাঁতের যথাযথ যত্ন ও সুরক্ষার অভাবে দাঁতের সমস্যা দেখা দেয়। এ সমস্যার মধ্যে একটি হচ্ছে দাঁতের ব্যাথা। এছাড়াও দাঁত ও মাড়ির বিভিন্ন ধরণের সমস্যার কারণেও দাঁতে ব্যাথা হতে পারে। দাঁতের সমস্যা প্রধান সমস্যা গুলো হচ্ছে ক্যাভিটি, মাড়ির সমস্যা, দাঁতের ইনফেকশন, দাঁত দিয়ে রক্ত পরা, দাঁতের গোঁড়া আলগা হয়ে যাওয়া ইত্যাদি। দাঁতের ব্যাথা হলে দুশ্চিন্তার কিছু নেই। কারন ঘরোয়া কিছু উপায়ে সহজেই দাঁতের ব্যাথা থেকে মুক্তি পেতে পারেন। তাহলে চলুন জেনে নেই উপায় সমূহ। ১। পেঁয়াজ পেঁয়াজে আছে অ্যান্টিসেপ্টিক উপাদান। এই অ্যান্টিসেপ্টিক উপাদান দাঁতের জীবাণু নষ্ট করে দাঁতের ব্যাথা উপশমে সাহায্য করে। প্রথমে দাঁতের ব্যাথা জায়গাটি খুজে বের করুন। এখন একটি পেঁয়াজ দাঁতের আক্রান্ত জায়গার কাছাকাছি নিয়ে চিবাতে থাকুন। আর

দাঁতের ব্যাথা উপশমের কিছু কার্যকারী উপায়2019-07-03T00:20:40+06:00

হেপাটাইটিস বি সম্পর্কে জানুন এবং হেপাটাইটিস বি ভাইরাস থেকে মুক্ত থাকুন।

হেপাটাইটিস বি এমন একটি বি-ভইরাস যা সারা বিশ্বব্যাপী মারাত্মক সংক্রামক রোগের জীবাণু হিসেবে পরিচিত। শিশুদের অনেক বেশি  এ রোগে আক্রান্ত হতে দেখা যায়। পরিসংখ্যানে দেখা গেছে, পৃথিবীতে প্রতি বছর প্রায় ৩ থেকে ৫ লাখ নবজাতক শিশু হেপাটাইটিস বি ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে জন্মগ্রহণ করে। যারা ভবিষ্যতে এই রোগের বাহক হয়ে যায়। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার মতে, বাংলাদেশের মোট জনসংখ্যার প্রায় ৫ শতাংশ হেপাটাইটিস-বি ভাইরাসের দীর্ঘমেয়াদি বাহক এবং এদের ২০ শতাংশ লিভার ক্যান্সার ও সিরোসিসের কারণে মারা যেতে যায়। বাস্তব ক্ষেত্রে হেপাটাইটিস-বি এইডসের চেয়ে ১০০ গুণ বেশি সংক্রামক এবং প্রতিবছর এইডসের কারণে পৃথিবীতে যত লোক মৃত্যুবরণ করে তার চেয়ে বেশি মৃত্যুবরণ করে থাকে হেপাটাইটিস-বি’ এর কারণে। হেপাটাইটিস বি কি ? বিশ্বব্যাপী হেপাটাইটিস ‘বি’ ভাইরাস একটি ভয়াবহ স্বাস্থ্য বিষয়েক সমস্যা

হেপাটাইটিস বি সম্পর্কে জানুন এবং হেপাটাইটিস বি ভাইরাস থেকে মুক্ত থাকুন।2019-03-01T14:39:19+06:00

অ্যাজমা বা হাঁপানি (শ্বাসকষ্ট) থেকে সুস্থ থাকতে চাইলে ইনহেলার ব্যাবহার সম্পর্কে জানুন

অ্যাজমা বা হাঁপানি হলো শ্বাসনালির প্রদাহজনিত দীর্ঘমেয়াদি একটি রোগ। এই রোগ প্রবাহের ফলে শ্বাসনালি অনেকটা ফুলে যায় এবং অতিমাত্রায় সংবেদনশীল হয়ে উঠে। এতে হাঁপানির বিভিন্ন লক্ষণ, যেমন—কাশি,  শ্বাসকষ্ট, বুকে চাপ বাধা এবং শোঁ শোঁ আওয়াজ হয় । সঠিক ও নিয়মিত ভাবে চিকিৎসা নিলে এ উপসর্গ গুলো সবই নিয়ন্ত্রণের মধ্যে চলে আসে। হাঁপানির চিকিৎসার বিভিন্ন ধরনের ওষুধ ব্যবহূত করা হয়, যেমন—রোগ নিরাময় ওষুধ, রোগ প্রতিরোধ বা বাধা দানকারী ওষুধ,ইনহেলার ইত্যাদি। এ ওষুধগুলো সম্পর্কে সকলের ধারণা থাকতে হয়। এই পর্বে আপনাদেরকে ইনহেলার ব্যাবহারের সম্পর্কে কিছু বলবো। ইনহেলার আসলে কি? ইনহেলার কীভাবে কাজ করে, এর সঠিক মাত্রা কী, ইনহেলার এর সাধারণত কী কী  পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া  থাকে এ সকল সম্পর্কে তুলে ধরা হবে। ইনহেলার  হলো অ্যাজমা রোগের উপশমকারী।ইনহেলার গ্রহণে কি কোন বাধা

অ্যাজমা বা হাঁপানি (শ্বাসকষ্ট) থেকে সুস্থ থাকতে চাইলে ইনহেলার ব্যাবহার সম্পর্কে জানুন2019-03-18T16:54:43+06:00