You are here:Home-Sufia Hasan

About Sufia Hasan

This author has not yet filled in any details.
So far Sufia Hasan has created 24 blog entries.

স্মৃতিশক্তি বাড়াতে নিয়মিত খাবারের তালিকায় রাখবেন যে খাবারগুলি

স্মৃতিশক্তি বাড়াতে নিয়মিত খাবারের তালিকায় রাখবেন যে খাবারগুলি স্মৃতি শক্তি আমাদের জন্য কতটা প্রয়োজন তা বলার অবকাশ থাকে না । ভুলে যাওয়া খুবই সাধারণ প্রক্রিয়া। সময়ের সাথে সাথে মানুষের স্মৃতি দুর্বল হয়ে যায়। তবে সময়ের এই প্রভাবকে একটু দীর্ঘায়িত করা যায়। হার্ট, ফুসফুস, পেশির যত্নের সাথে সাথে সুস্থ থাকতে হলে খেয়াল রাখতে হবে আপনার মস্তিষ্কের দিকেও।বয়স বাড়ার সাথে সাথে স্মৃতিশক্তি কমতে থাকে । আবার দেখা যায় অনেক বাচ্চারও স্মৃতি সমস্যা দেখা যায় । সম্প্রতি বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও) বিশ্বজুড়ে ডিমেনশিয়া বা স্মৃতিভ্রংশ বৃদ্ধি সম্পর্কে ভয়ঙ্কর তথ্য প্রদান করেছে। তাদের দেয়া তথ্য মতে, বিশ্বে স্মৃতিশক্তি সমস্যাজনিত রোগে আক্রান্তের সংখ্যা চার কোটি ৭৫ লাখ। প্রতি বছর এই দলে যুক্ত হচ্ছে আরও ৭০ লাখ ৭০ হাজার মানুষ। বর্তমান

স্মৃতিশক্তি বাড়াতে নিয়মিত খাবারের তালিকায় রাখবেন যে খাবারগুলি2019-07-16T16:56:44+06:00

নিরাপদ মাতৃত্ব – গর্ভকালীন পরিচর্যা ও স্বাস্থ্যসেবা

নিরাপদ মাতৃত্ব - গর্ভকালীন পরিচর্যা ও স্বাস্থ্যসেবা গর্ভধারণের সময় হতে সন্তান ভূমিষ্ঠ হওয়া পর্যন্ত সময়কালে মা ও শিশুর যত্নকে গর্ভকালীন যত্ন বা Antinatal Care বলে। এই গর্ভকালীন যত্নের লক্ষ্য হলো মা ও শিশুর সুস্বাস্থ্য নিশ্চিত করা এবং গর্ভজনিত কোনো জটিলতা দেখা দিলে তার প্রতিরোধ বা চিকিৎসা করা। এক কথায় মায়ের স্বাস্থ্যের কোনো অবনতি না করে সমাজকে একটি সুস্থ শিশু উপহার দেয়া। একজন গর্ভবতী মায়ের গর্ভকালীন সময়ে নিয়মিত স্বাস্থ্যসেবা, নিরাপদ প্রসব এবং প্রসব পরবর্তী স্বাস্থ্য সেবা নিশ্চিত করা গর্ভবতীর স্বামীসহ পরিবারের সকলের সমান দায়িত্ব । ১। গর্ভধারণের পরপরই একজন গর্ভবতী মহিলার গর্ভকালীন যত্নের জন্য স্বাস্থ্যকেন্দ্রে যেতে হবে অথবা ডাক্তারের শরণাপন্ন হওয়া উচিত। প্রথম ভিজিটের পর একজন গর্ভবতীকে সাধারণত ২৮ সপ্তাহ পর্যন্ত প্রতিমাসে একবার, ৩৬ সপ্তাহ পর্যন্ত

নিরাপদ মাতৃত্ব – গর্ভকালীন পরিচর্যা ও স্বাস্থ্যসেবা2019-07-14T21:23:53+06:00

দাম্পত্য জীবনে সুখি হওয়ার কিছু কার্যকরী টিপস

দাম্পত্য জীবনে সুখি হওয়ার কিছু কার্যকরী টিপস সুখী দাম্পত্য জীবন সকলেই চায়। কিন্তু চাইলেই তো আর জীবনে সুখ পাওয়া যায় না। সুখী দাম্পত্য জীবন পেতে গেলে তার কতগুলি শর্ত মেনে চলতে হয়। এই শর্তগুলি মানলেই জীবন হয়ে ওঠে আনন্দময়। এক সংসারে থাকতে গেলে হাতা আর খুন্তির মধ্যে কিছু ঠোকা ঠুকি তো লাগবেই। কিন্তু তা বলে একসঙ্গে থাকব না বললে কীভাবে চলবে! তাহলে চট জলদি নিচের শর্তগুলিতে চোখ বুলিয়েই ভাবুন কীভাবে সুখী রাখবে আপনার দাম্পত্য জীবনকে দাম্পত্য জীবনে সুখি হওয়ার শর্তসমূহ ১। রাগকে সঙ্গে করে বিছানায় যাবেন না মাথা গরম তো সকলেরই হয়। কিন্তু তা বলে এক মুখ রাগ নিয়ে বিছানায় গেলে কখনো দাম্পত্য আর সুখীর আখ্যা পাবে না। তাই বিছানায় যাওয়ার আগেই নিজের রাগকে থিতু

দাম্পত্য জীবনে সুখি হওয়ার কিছু কার্যকরী টিপস2019-07-07T23:01:24+06:00

যৌন স্বাস্থ্য রক্ষায় কিছু বিষয় সকলের জানা উচিত

যৌন স্বাস্থ্য রক্ষায় কিছু বিষয় সকলের জানা উচিত আমাদের দেশের অধিকাংশ মানুষ যৌন স্বাস্থ্যের ব্যাপারে একেবারেই অসচেতন। অন্যান্য শারীরিক সমস্যায় সবার সাথে আলোচনা কিংবা ডাক্তারের কাছে গেলেও যৌন স্বাস্থ্যের সমস্যায় তারা সহজে কারো সাথে আলাপ করে না। কিন্তু সুখী দাম্পত্য জীবনের জন্য দরকার সুখী ও স্বাস্থ্যকর যৌন জীবন। যৌন স্বাস্থ্য ভালো থাকলে দাম্পত্য জীবন হয় সুখী ও সুন্দর। আর তাই সকলেরই যৌন স্বাস্থ্যের যত্ন নেয়া উচিত। যৌন স্বাস্থ্য ভালো রাখার আছে কিছু বিশেষ উপায়। আসুন জেনে নেয়া যাক যৌন স্বাস্থ্য ভালো রাখার উপায় সম্পর্কে। যৌন স্বাস্থ্য ভালো রাখার ৫টি উপায় ১। পুষ্টিকর খাবার খাওয়া: সুস্থ যৌন স্বাস্থ্যের জন্য প্রয়োজন শরীরের জন্য প্রয়োজনীয় পুষ্টি উপাদান। কিছু বিশেষ খাবার আছে যেগুলো যৌন স্বাস্থ্য ভালো রাখার ক্ষেত্রে ভূমিকা

যৌন স্বাস্থ্য রক্ষায় কিছু বিষয় সকলের জানা উচিত2019-07-07T19:50:08+06:00

প্রবীণদের শারীরিক সমস্যা এবং আমাদের করনীয়

প্রবীণদের শারীরিক সমস্যা এবং আমাদের করনীয় শৈশবের সোনালি সকাল শেষ করে তারুণ্য আর যৌবনের রোদেলা দুপুর পাড়ি দিয়ে, মাঝ বয়সের ব্যস্ত বিকালটাও যখন চলে যায়, তখনই জীবনের গোধূলিবেলা হয়ে আসে বার্ধক্য। এই সময়টাই মানবজীবনের শেষ অধ্যায়। আমাদের সমাজে প্রবীণদের স্বাস্থ্য বা অন্যান্য সমস্যা নিয়ে তেমন কিছু ভাবি না। বয়স্করা বা প্রবীণরা তো আমাদের পরিবারের সৌন্দর্য। তাদের দিকে আমাদের গুরুত্ব দেওয়া উচিত। কারণ তারা পরিবারের শ্রদ্ধার পাত্র। তারা অসুস্থ থাকলে গোটা পরিবারেই অশান্তি নেমে আসে। এ জন্য প্রথম থেকেই তাদের স্বাস্থ্য বিষয়ে সচেতন থাকতে হয়। তা ছাড়া মানুষের বয়স যত বাড়ে মানুষ তত একাকী হয়ে পড়ে। এটা বয়স্কদের বা প্রবীণদের জন্য পীড়াদায়ক। সুতরাং যতটা সম্ভব তাদের সঙ্গ দেওয়া উচিত। বয়স্ক বা প্রবীণ লোকের সাধারণত যেসব সমস্যা

প্রবীণদের শারীরিক সমস্যা এবং আমাদের করনীয়2019-07-06T23:43:42+06:00

পুরুষের টেস্টিকুলার বা অণ্ডকোষের ক্যান্সারের লক্ষণ

পুরুষের টেস্টিকুলার বা অণ্ডকোষের ক্যান্সারের লক্ষণ নারী-পুরুষ উভয়ের জন্যই ক্যান্সার একটি মারাত্মক রোগের নাম। কিছু ক্যান্সার শুধুমাত্র নারীকে আক্রান্ত করে, যেমন জরায়ু বা জরায়ুমুখের ক্যান্সার। ঠিক তেমনই শুধু পুরুষকে আক্রান্ত করে এমন এক ভয়াবহ ক্যান্সার হলো টেস্টিকুলার বা অণ্ডকোষের ক্যান্সার। পৃথিবীতে প্রতি ২৬৩ জন পুরুষের মাঝে একজন এই ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়। কিন্তু এই রোগের লক্ষণগুলো সহজে ধরা যায় না বলে এই রোগ আরও ভয়াবহ আকার ধারণ করে। জেনে নিন টেস্টিকুলার ক্যান্সারের ৮টি নীরব লক্ষণ- ১। অণ্ডকোষে ব্যথাহীন একটি পিণ্ড এই ক্যান্সারের সবচেয়ে বড় লক্ষণ হলো টেস্টিকল বা অণ্ডকোষে ব্যথাহীন একটি লাম্প বা পিণ্ড। এতে কোনো ধরণের ব্যথা বা অস্বস্তি দেখা যায় না, ফলে তা খেয়াল করে না অনেকেই। অণ্ডকোষে কোনো পিণ্ড তৈরি হয়েছে কিনা তা

পুরুষের টেস্টিকুলার বা অণ্ডকোষের ক্যান্সারের লক্ষণ2019-07-05T21:03:58+06:00

স্তন ক্যান্সার: লক্ষণ, করণীয়, প্রতিরোধ ও প্রতিকার

স্তন ক্যান্সার: লক্ষণ, করণীয়, প্রতিরোধ ও প্রতিকার সারা বিশ্বে নারীমৃত্যুর অন্যতম কারণ হলো স্তন ক্যান্সার। প্রতি ৮ জন মহিলার মধ্যে ১ জনের স্তন ক্যান্সার হতে পারে এবং আক্রান্ত প্রতি ৩৬ জন নারীর মধ্যে মৃত্যুর সম্ভাবনা ১জনের। আমাদের দেশে ক্যান্সারে যত নারীর মৃত্যু হয়, তার অন্যতম কারণ হচ্ছে স্তন ক্যান্সার। প্রতি ৬ মিনিটে একজন নারী আক্রান্ত হয় এবং প্রতি ১১ মিনিটে স্তন ক্যান্সারে আক্রান্ত একজন নারী মারা যায়। কিন্তু এতকিছুর পরেও আমাদের সমাজে স্তন ক্যান্সার নিয়ে রয়েছে পর্যাপ্ত সচেতনতার অভাব। আর এই সচেতনতার অভাবের কারণে অনেকের একেবারে শেষ পর্যায়ে গিয়ে ধরা পড়ছে এটি। তখন মৃত্যুর প্রহর গোনা ছাড়া আর কোনো উপায় থাকে না। অথচ ঘরে বসেই সহজে একজন নারী তার স্তন পরীক্ষা করে নিতে পারেন। এতে

স্তন ক্যান্সার: লক্ষণ, করণীয়, প্রতিরোধ ও প্রতিকার2019-07-05T18:22:51+06:00

মেছতা দূর করার ঘরোয়া উপায়

মেছতা দূর করার ঘরোয়া উপায় মেছতার সমস্যায় ভুগতে দেখা যায় অনেককেই। মেছতা হওয়ার অন্যতম কারণ অপরিচ্ছন্ন ত্বক। ঘরোয়া উপায়ে মেছতা দূর করা ও ত্বক পরিষ্কার করার উপায়- ১। লেবু ত্বককে উজ্জ্বল করতে, ত্বকের কালো দাগ দূর করতে লেবুর জুড়ি নেই। এটি ব্লিচের কাজ করে। লেবুর রসের উচ্চমাত্রার সাইট্রিক এসিড ত্বকের অধিক তেল শোষণ করে ব্যাকটেরিয়া সংক্রমণ থেকে ত্বককে রক্ষা করে। প্যাক তৈরির উপকরণ (ক) তাজা লেবুর রস ১ চা চামচ (খ) টমেটোর রস ১ চা চামচ উপকরণ গুলি এক সাথে ভালোভাবে মিশিয়ে নিন। এটি ত্বকে লাগিয়ে হালকাভাবে ম্যাসাজ করুন এবং ১৫ থেকে ২০ মিনিট পর ধুয়ে ফেলুন। এক মাস ব্যাবহার করলে ত্বকের মেচতা দূর হবে। এছাড়া তাজা লেবুর রস ত্বকে লাগিয়ে রাখুন ১৫ থেকে ২০

মেছতা দূর করার ঘরোয়া উপায়2019-07-03T00:06:42+06:00

অফিসে হাজারো কাজের ফাঁকে নিজেকে সুস্থ রাখার উপায়

অফিসে হাজারো কাজের ফাঁকে নিজেকে সুস্থ রাখার উপায় প্রতিযোগিতার এই যুগে কর্মক্ষেত্রে টিকে থাকতে দশ জনের কাজ করতে হয় এক জনকে । কাজে জয়ী হতে শরীর আর মনোযোগ ঠিক রাখা প্রয়োজন সবার আগে। প্রয়োজন পড়ে স্বাস্থ্যকর খাবার গ্রহণের। হাজারো কাজের চাপে খাবার গ্রহণ দূরে থাক, প্রয়োজনীয় বিশ্রাম পর্যন্ত নেয়া সম্ভব হয় না। সেজন্য প্রয়োজন কিছু কৌশল অবলম্বন করা। আপনাকে কর্মক্ষেত্রে প্রাণবন্ত রেখে কাজের উদ্দীপনা জাগাতে এই কৌশলের কোনো বিকল্প নেই, অপরদিকে বাড়তি সময় ব্যয় করার প্রয়োজনই নেই। কাজের ফাঁকে খাওয়ার অভ্যাসে শরীর ঠিক থাকবে, আবার কাজও ঠিক থাকবে। চলুন তাহলে কৌশল গুলো জেনে নেওয়া যাক। ১। দুপুরের খাবার সকালে অফিসে যাওয়ার সময় তাড়াহুড়ো করে বের হওয়ার কারণে বেশিরভাগ কর্মজীবীরই ঠিকমতো নাস্তা করা হয়ে ওঠে না।

অফিসে হাজারো কাজের ফাঁকে নিজেকে সুস্থ রাখার উপায়2019-07-03T00:20:20+06:00

তৈলাক্ত ত্বকের যন্ত্রণা থেকে চিরতরে মুক্তি পাওয়ার ঘরোয়া টিপস

তৈলাক্ত ত্বকের যন্ত্রণা থেকে চিরতরে মুক্তি পাওয়ার কিছু ঘরোয়া টিপস যাদের ত্বক তৈলাক্ত,তারা ত্বক নিয়ে বেশী সমস্যায় পড়েন। তেল চিটচিটে ভাবের জন্য মুখে কোনো কিছুই মানায় না। আবার ত্বকের তৈলাক্ততার জন্য উপরিভাগে জমে ময়লা। সব মিলিয়ে তৈলাক্ত ত্বক খুব সহজেই ব্রণের আক্রমণের শিকার হয়। ভালো ফেসওয়াশ, দামী ফেসিয়াল ইত্যাদি যত যাই করুন না কেন, তৈলাক্ত ত্বক থেকে মুক্তি মেলে না। কিছুক্ষণ পরই ফিরে আসে তেল চিটচিটে ত্বক আর আপনার মলিন হওয়া চেহারা। ১। লবণের স্প্রে উপকরণ ও পরিমাপ (ক) স্প্রে বোতল ১টি (খ) পানি ১ কাপ (গ) লবন ১ টেবিল চামচ ব্যাবহার বিধি লবণের রয়েছে ভেতর থেকে ত্বকের তেল-ময়লা দূর করার ক্ষমতা। তাই এটা খুব কার্যকরী ত্বকের তৈলাক্ততা দূর করতে। একটি স্প্রে বোতলে পানি নিয়ে

তৈলাক্ত ত্বকের যন্ত্রণা থেকে চিরতরে মুক্তি পাওয়ার ঘরোয়া টিপস2019-07-03T00:07:00+06:00

মুখের অবাঞ্ছিত লোম হওয়ার কারন ও দূর করার ঘরোয়া উপায়

মুখের অবাঞ্ছিত লোম হওয়ার কারন ও দূর করার ঘরোয়া উপায় বর্তমান সব মেয়েদের একটি কমন সমস্যা হচ্ছে অবাঞ্ছিত লোম। মুখের অবাঞ্ছিত লোম দূর করার অনেক ধরণের ব্যবস্থা রয়েছে। তবে বেশিরভাগই বেশ কষ্টদায়ক। অনেক ক্ষেত্রে এর পার্শ্বপ্রতিক্রিয়াও থাকে। মুখের এই অবাঞ্ছিত লোম দূর করার কিছু ঘরোয়া সহজ পদ্ধতি রয়েছে। এই পদ্ধতিগুলো প্রাকৃতিক উপাদান দিয়ে তৈরি করা হয় বলে এর পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া নেই। হিরসুটিজম বা অবাঞ্ছিত লোম হওয়ার প্রধান কারণ : ১। নারীর রক্তে পুরুষ হরমোন এন্ড্রোজেনের মাত্রা বৃদ্ধি পেলে ২। জেনেটিক কারণে এবং ৩। হরমোনের ভারসাম্যহীনতার কারণে। যাদের এই সমস্যা আছে লজ্জার কিছু নেই। সুখবর হচ্ছে অবাঞ্ছিত লোম দূর করার জন্য ব্যয়বহুল ও ব্যথাযুক্ত ট্রিটমেন্ট করার পরিবর্তে প্রাকৃতিক উপাদান ব্যবহার করেই এই অস্বস্তিকর সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে

মুখের অবাঞ্ছিত লোম হওয়ার কারন ও দূর করার ঘরোয়া উপায়2019-04-07T17:47:46+06:00

ইউরিন ইনফেকশনের লক্ষণ ও প্রতিকার করার উপায়

ইউরিন ইনফেকশনের লক্ষণ ও প্রতিকার করার উপায় বর্তমান আমাদের শারীরিক সমস্যার মধ্যে একটি উল্লেখযোগ্য সমস্যা হচ্ছে ইউরিন ইনফেকশন। এটি নারী পুরুষ উভয়ের হয়ে থাকে। তবে প্রতি দুই জন নারীর মাঝে একজনকে পাওয়া যায় যার ইউরিন ইনফেকশন আছে। মানুষের শরীরের ২টি কিডনি, ২টি ইউরেটার, ১টি ইউরিনারি ব্লাডার (মূত্রথলি) এবং ইউরেথ্রা (মূত্রনালি) নিয়ে মূত্রতন্ত্র গঠিত। আর এই রেচনন্ত্রের যেকোনো অংশে যদি জীবাণুর সংক্রমণ হয় তাহলে সেটাকে ‘ইউরিনারি ট্র্যাক্ট ইনফেকশন’ বলা হয়। কিডনি, মূত্রনালি, মূত্রথলি বা একাধিক অংশে একসঙ্গে এই ধরণের সংক্রমণ হতে পারে। এই সংক্রমণকেই সংক্ষেপে ইউরিন ইনফেকশন বলা হয়। সাধারণত এই সমস্যাটি মহিলা ও পুরুষ উভয়ের মধ্যে হলেও মহিলাদের ইউরিন ইনফেকশনে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা অনেক বেশি। ইউরিন ইনফেকশন ও তার প্রতিকার সম্পর্কে জেনে নিন। ইউরিন ইনফেকশনের

ইউরিন ইনফেকশনের লক্ষণ ও প্রতিকার করার উপায়2019-04-06T19:05:08+06:00

হ্যাকারদের হাত থেকে রক্ষা পেতে আপনাকে যা করতে হবে

হ্যাকারদের হাত থেকে রক্ষা পেতে আপনাকে যা করতে হবে ইন্টারনেট একদিকে যেমন  আমাদের জীবনকে অনেক সহজ করেছে ঠিক তেমনি অন্যদিকে করেছে নিরাপত্তাহীনতার ।  ইন্টারনেটের্ক এ সকল বিস্তারের সঙ্গে সঙ্গে বেড়েছে অনেক হ্যাকারদের হ্যাক করার  দৌরাত্ম্য। তারা নানান উপায়ে আপনার সকল  তথ্য চুরি করে আপনারই গ্রাকদের বিপদে ফেলছে।বর্তমান সময়ে যারা অনেক বেশি ইন্টারনেট ব্যবহার করে থাকে তাদের সকল  তথ্যের নিরাপত্তা নিয়ে তারা  চিন্তিত।  দিন যত যাচ্ছে তদের একটা  হুমকি ততোই বেড়ে চলছে এ হ্যাকারদের কারনে । তাই আমাদের  ইন্টারনেট নিরাপদ রাখতে আমাদেরকে  নিজেকেই সচেতন থাকতে হবে প্রতিটা সময় । পাশাপাশি অনেক ছোট ছোট  কৌশল আপনি  অবলম্বন করলে পারেন । আসুন দেখে নিই সেরকম কিছু কৌশল- ১. আপনার  কম্পিউটারে অনেক বেশি তথ্য আছে  যেমন- অনেক অ্যাকাউন্ট এর

হ্যাকারদের হাত থেকে রক্ষা পেতে আপনাকে যা করতে হবে2019-03-24T22:51:30+06:00

মোবাইলের তেজস্ক্রিয়া মানব দেহের জন্য ক্ষতিকর

মোবাইলের তেজস্ক্রিয়া মানব দেহের জন্য ক্ষতিকর বর্তমান সময়ে মোবাইলফোন একটি অতি প্রয়োজনীয় ডিভাইস। অনেকে এটি জীবনের গুরুত্বপূর্ণ একটি অংশ মনে করে। এবং প্রতিনিয়ত এই ডিভাইসটির প্রতি আমাদের আসক্তি বেড়েই চলেছে। আবার আমরা অনেকেই জানি যে, মোবাইল ফোন অতিরিক্ত ব্যবহার করলে আমাদের বিভিন্ন রকম ক্ষতি হচ্ছে। কিন্তু আমরা অনেকে জানি না যে, মোবাইল ব্যবহারের ফলে আমাদের কী কী ধরনের ক্ষতি হচ্ছে। আবার যারা জানেন তারাও মোবাইলফোন ব্যবহার থেকে বিরত থাকতে পারছেন না। কারন প্রয়োজনের তাগিদে বাধ্য হয়ে ব্যাবহার করতে হচ্ছে। আমাদের প্রয়োজনীয় এই ডিভাইসটি আমাদের কী কী ধরণের ক্ষতি করছে চলুন তাহলে জেনে নিই— যেভাবে আক্রান্ত হই আমাদের এই প্রয়োজনীয় ডিভাইসটি দিয়ে সাধারণত আমারা বার্তা আদান প্রদান ও দূর আলাপনীর কাজে ব্যবহার করে থাকি। আর ফোনটি

মোবাইলের তেজস্ক্রিয়া মানব দেহের জন্য ক্ষতিকর2019-03-24T00:52:58+06:00

ঝটপট বানিয়ে ফেলুন শহী গাজরের হালুয়া

ঝটপট বানিয়ে ফেলুন শহী গাজরের হালুয়া শীতকাল শব্দটা শুনলেই ভোজন রসিকদের মাথায় পরপর কয়েকটা নাম চলে আসে। যেমন  পিঠাপুলি, খেজুরের রস, খেজুর গুড় , বাহারি সবজি ইত্যাদি। আর শীতের সময়ে বাজারে নানারকম সুস্বাদু টাটকা সবজি পাওয়া যায়। গাজর তার মধ্যে খুব পরিচিত। সাধারণত বিভিন্ন রান্নাকে কালারফুল করতে আমরা গাজর বেশি ব্যবহার করি। তাছাড়া এই সবজি দিয়ে আরো নানারকম মুখরোচক ডেজার্ট বানানো যায়। যেমন , গাজরের হালুয়া, গাজরের বরফি, ছানা গাজরের সন্দেশ বা ক্যারোট ডিলাইট, গাজরের কেক /ক্যারোট কেক, বেকড ক্যারোট ডিলাইট আরো কত কি ! এই সব কিছুর মধ্যে সবথেকে সহজ আর ঝটপট তৈরী করা যায় গাজরের হালুয়া। চলুন তাহলে জেনে নেওয়া যাক রেসিপিটি।  উপকরণ সমূহ ১। গ্রেট করা গাজর - ৩ কাপ ২। চিনি

ঝটপট বানিয়ে ফেলুন শহী গাজরের হালুয়া2019-03-23T00:36:10+06:00

দাঁতের ব্যাথা উপশমের কিছু কার্যকারী উপায়

দাঁতের ব্যাথা উপশমের কিছু কার্যকারী উপায় দাঁতের যথাযথ যত্ন ও সুরক্ষার অভাবে দাঁতের সমস্যা দেখা দেয়। এ সমস্যার মধ্যে একটি হচ্ছে দাঁতের ব্যাথা। এছাড়াও দাঁত ও মাড়ির বিভিন্ন ধরণের সমস্যার কারণেও দাঁতে ব্যাথা হতে পারে। দাঁতের সমস্যা প্রধান সমস্যা গুলো হচ্ছে ক্যাভিটি, মাড়ির সমস্যা, দাঁতের ইনফেকশন, দাঁত দিয়ে রক্ত পরা, দাঁতের গোঁড়া আলগা হয়ে যাওয়া ইত্যাদি। দাঁতের ব্যাথা হলে দুশ্চিন্তার কিছু নেই। কারন ঘরোয়া কিছু উপায়ে সহজেই দাঁতের ব্যাথা থেকে মুক্তি পেতে পারেন। তাহলে চলুন জেনে নেই উপায় সমূহ। ১। পেঁয়াজ পেঁয়াজে আছে অ্যান্টিসেপ্টিক উপাদান। এই অ্যান্টিসেপ্টিক উপাদান দাঁতের জীবাণু নষ্ট করে দাঁতের ব্যাথা উপশমে সাহায্য করে। প্রথমে দাঁতের ব্যাথা জায়গাটি খুজে বের করুন। এখন একটি পেঁয়াজ দাঁতের আক্রান্ত জায়গার কাছাকাছি নিয়ে চিবাতে থাকুন। আর

দাঁতের ব্যাথা উপশমের কিছু কার্যকারী উপায়2019-07-03T00:20:40+06:00

মাসিকের পেটে ব্যাথা কম করার কিছু কার্যকরী টিপস

মাসিকের ব্যাথা কম করার কিছু কার্যকরী টিপস। ঋতুস্রাব মেয়েদের একটি স্বাভাবিক ঘটনা। মাসিকের সময় পেটে ব্যাথা হওয়াটা ও স্বাভাবিক। তবে কারো কম আবার কারো বেশি হয়। অনেকের ব্যাথার পরিমান এত বেশি থাকে যে তাদের স্বাভাবিক কার্যক্রম বাধা পায়। অনেকে মেডিসিন খেয়ে ব্যাথা কমায়। তবে মেডিসিন না খেয়ে ঘরোয়া কিছু উপায়ে এই ব্যাথা কমান সম্ভব। ১। গরম পানির সেঁক মাসিকে অনেক বেশি পেটে ব্যাথা করলে হট ব্যাগে গরম পানি নিয়ে পেটের উপরে দিয়ে রাখুন। এতে আপনার ব্যাথা কবে যাবে। সম্ভব হলে গরম পানি দিয়ে গসল করতে পারেন। আপনার পেটের ব্যাথা কমিয়ে কিছুতা স্বস্তি পাবেন। ২। পেটে ব্যাথা কমাতে দুধের ভূমিকা সকালের নাস্তার মেনুতে রাখুন দুধ। প্রতিদিন এক গ্লাস করে দুধ পান করুন। এটি আপনার শরীরের ক্যালসিয়ামের

মাসিকের পেটে ব্যাথা কম করার কিছু কার্যকরী টিপস2019-03-17T21:16:36+06:00

বিয়ে বাড়ির মজাদার স্বাদের শাহী জর্দা রেসিপি

বিয়ে বাড়ির মজাদার শাহী জর্দা রেসিপি বিয়ে মানে আনেক খাওয়া দাওয়া আর মজা মাস্তি হৈচৈ। তবে আনেক খাবারের মধ্যে মজাদার একটি খাবার আইটেম হচ্ছে শাহী জর্দা। ডেজার্টের টেবিলে জর্দা থাকবেনা তাই কি হয়। চলুন তাহলে জেনে নেওয়া যাক শাহী জর্দা রেসিপি। টিপস ফলো করে যদি জর্দা বানান তাহলে এটা হবে একদম পারফেক্ট ঝরঝরে আর সুস্বাদু জর্দা। উপকরণ ১। পোলাও চাল/ বাসমতী চাল ১ কাপ ২। চিনি ১ কাপ ৩। পানি ৩/৪ কাপ ৪। ঘি ১/২ কাপ ৫। এলাচ ২ টি ৬। তেজপাতা ১ টি ৭। লবঙ্গ ৬ টি ৮। কিশমিশ ৮ থেকে ১০ টি ৯। মোরব্বা কুচি ১/২ কাপ ১০ বাদাম কুচি সামান্য ১১। ফুড কালার ১/২ চামচ ১২। বেবি সুইটস ৭/৮ টি প্রস্তুত প্রণালি

বিয়ে বাড়ির মজাদার স্বাদের শাহী জর্দা রেসিপি2019-03-13T16:45:23+06:00

ডার্ক সার্কেল দূর করার ঘরোয়া কিছু টিপস

ডার্ক সার্কেল দূর করার ঘরোয়া কিছু টিপস বর্তমান সময়ে প্রায় অধিকাংশ মেয়েদের একটি কমন সমস্যা হচ্ছে ডার্ক সার্কেল। চখের নিচে ডার্ক সার্কেল এর কারণে চেহারায় বয়সের ছাপ পরে যায়। রিয়েল বয়সের থেকে বশি বয়স দেখায়। এই ডার্ক সার্কেল হওয়ার অনেক গুলা কারন বিদ্যমান। যেমন হতাশা, এলার্জি, স্ট্রেস, ধূমপান, মাদকাসক্তি ইত্যাদি। যারা ডার্ক সার্কেল এর সমস্যায় ভুগছেন তাদের জন্য সুখবর, আপনার সমস্যা সমাধান করতে অনেক বেশি টাকা খরচ করে দামি কস্মেটিক ব্যাবহার করতে হবে না। ঘরে বসে আপনি আপনার সমস্যার সমাধান করতে পারবেন। চলুন তাহলে জেনে নেওয়া যাক উপায় গুলি ১। নারিকেল তেল নারিকেল তেলের উপকারিতা বলে শেষ করা যাবেনা। এটা আপনার স্বাস্থ্য এবং শরীরের জন্য খুব উপকারি। আপনার চখের নিচে ডার্ক সার্কেল দূর করার জন্য

ডার্ক সার্কেল দূর করার ঘরোয়া কিছু টিপস2019-03-14T22:41:14+06:00

বাংলাদেশি রেস্টুরেন্ট স্টাইলে থাই স্যুপ রেসিপি

বাংলাদেশি রেস্টুরেন্ট স্টাইলে থাই স্যুপ রেসিপি বর্তমানের এই  ব্যস্ততার দিনে সময় সল্পতার কারনে রেস্টুরেন্টের মজাদার খাবার গুলা আর খাওয়া হয়ে ওঠে না। ব্যস্ততা গ্রাস করে ফেলেছে আমাদের সুন্দর মুহূর্ত গুলো। তবে খাওয়ার ইচ্ছে হলে সেটা তো মিস করা যায়না। হ্যাঁ তবে ঘরে বসে আপনি তৈরি করতে পারবেন রেস্টুরেন্ট এর মত মজাদার থাই স্যুপ। চলুন তাহলে রেসিপি টা জেনে নেওয়া যাক। উপকরণ সমূহ ১।  চিকেন স্টক প্রায় ৪ কাপ ২।  রান্না করা চিংড়ি ও চিকেন ১/২ কাপ ৩।  স্পেশাল সস ১/২ কাপ ৪।  কর্ণ ফ্লাওয়ার ৪ থেকে ৫ টেবিল চামচ ৫।  ডিম ১ টি ৬।  লেমন গ্রাস ১ টি ৭।  লেবুর রস ২ চা চামচ ৮।  লবন পরিমান মত একটি পাত্রে চিকেন স্টক নিয়ে নিন, অবশ্যয়

বাংলাদেশি রেস্টুরেন্ট স্টাইলে থাই স্যুপ রেসিপি2019-03-05T17:07:56+06:00