You are here:Home-Kamrun Nahar

About Kamrun Nahar

This author has not yet filled in any details.
So far Kamrun Nahar has created 71 blog entries.

ম্যাংগো, বানানা ও চকলেটের ৩ টি স্বাদের ঠাণ্ডা লাচ্ছি

প্রচণ্ড গরমের সাথে সাথে চলছে কাঁচা পাকা আমের সমারোহ। শুধু আমই নয়, নানান রকমের ফলফলাদি পাওয়া যায় এই মধু মাসে। কিন্তু ছোট বড় বেশির ভাগ মানুষ আম খেতে পছন্দ করে। তাই আজকে আমরা জানব কিভাবে আমের সাথে কলা মিশিয়ে লাচ্ছি বানাতে হয়।   লাচ্ছি যেমন সবাই পছন্দ করে তেমনি আমও খেতে পছন্দ করে। তাই আজকে ভিন্নধর্মী লাচ্ছি, ম্যাংগো বানানার লাচ্ছি বানানোর পদ্ধতি জানব। ম্যাংগো বানানার লাচ্ছি উপকরণ আম টুকরা= ৪ পিছ কলা টুকরা=৪ পিছ অরেঞ্জ জুস= ২ কাপ চিনি= ২ চা চামচ বরফ কুঁচি= পরিমাণমতো টকদই= ১ চা চামচ রুহ আফজা= ২ চা চামচ চিনি পানি = ১ কাপ বাদাম কুঁচি=১ চা চামচ   প্রস্তুত প্রণালী ব্লেন্ডার-এ আমের টুকরা, কলার টুকরা, অরেঞ্জ জুস ও চিনি

ম্যাংগো, বানানা ও চকলেটের ৩ টি স্বাদের ঠাণ্ডা লাচ্ছি2020-05-30T20:05:35+06:00

এই গরমের বেস্ট পানীয়, বাদাম বা খেজুরের লাচ্ছি

গরমে বাইরে ঘুরে ঘুরে ক্লান্ত হয়ে গেছেন? ঘরে এসে এক গ্লাস ঠাণ্ডা ঠাণ্ডা লাচ্ছি খেলে কমন হয়? দারুন হয় ব্যাপারটা! তাই খুব ঝামেলায় না গিয়ে বানিয়ে ফেলতে পারেন এক গ্লাস লাচ্ছি। লাচ্ছি সব সময় এক রকম না খেয়ে একটু ভিন্নতা আনতে পারেন। ভিন্নতা আনতে বানাতে পারেন এক নতুন লাচ্ছি। জাফরান এর লাচ্ছি বা খেজুর এর লাচ্ছি। বাসায় হুট করে যদি মেহমানও চলে আসে চটজলদি সমাধানে বানাতে পারেন এই লাচ্ছি। এতে তারা যেমন খেয়েও খুশি হবে, আপনি বানিয়েও খুশি হবেন।জাফরান বা খেজুরের লাচ্ছি একরকম ভিন্ন আইটেমের লাচ্ছি। চলুন জেনে নেয়া যাক কি ভাবে জাফরান লাচ্ছি বানাতে হয়ঃ জাফরান লাচ্ছি রেসিপি উপকরণ এক গ্লাস লাচ্ছিতে লাগবে টক দই = ১.৫ কাপ জাফরান= ১/৪ টেবিল চামচ চিনি=৩টেবিল চামচ

এই গরমের বেস্ট পানীয়, বাদাম বা খেজুরের লাচ্ছি2020-05-26T20:33:10+06:00

বাদামের লাচ্ছি! এই গরমের স্বাস্থ্যসম্মত পানীয়

খুব গরম পরছে।শুধু পানি খেতে আর ইচ্ছে করছে না। তাই এই গরমে চাই একটি স্বাস্থ্যসম্মত পানীয়। যা খেতেও  মজা , পুষ্টিকর আবার স্বাস্থ্যসম্মত। তাই শরীর মন ঠাণ্ডা এবং মনে প্রশান্তি আনতে খেতে পারেন লাচ্ছি। হাতের কাছে যা থাকে তাই দিয়েই বানাতে পারেন বাদামের ঠাণ্ডা লাচ্ছি। বাদামে থাকে প্রোটিন, ক্যালসিয়াম, ভিটামিন ই, ফাইবার, অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট, ওমেগা থ্রি ফ্যাটি অ্যাসিডসহ আরও অনেক পুষ্টিগুণ! আবার যারা ডায়েট চার্ট মেনে চলেন তাদের জন্য এটা একদম পারফেক্ট পানীয়। এতে কোন বাড়তি চিনি ব্যাবহার করা হয় না। তাই যারা বাড়তি চিনি পছন্দ করেন না তারাও এটা নির্ভয়ে খেতে পারেন। তাহলে চলুন দেখা যাক বাদামের লাচ্ছি বানানোর সহজ পদ্ধতি।   বাদাম লাচ্ছি তৈরির নিয়ম উপকরণ বাদাম=১/২ কাপ (কাজুবাদাম, চিনাবাদাম, আখরোট বা পেস্তা) টকদই= ১

বাদামের লাচ্ছি! এই গরমের স্বাস্থ্যসম্মত পানীয়2020-05-26T12:43:09+06:00

দারুচিনি আপেলের সুস্বাদু লাচ্ছি তৈরির সহজ পদ্ধতি

প্রচণ্ড গরম পড়েছে? এক গ্লাস ঠাণ্ডা পানীয় হলে কেমন হয়? আর তা যদি হয় আপনার পছন্দের লাচ্ছি? তা হলে তো কথাই নেই। আপনি এই গরমে প্রশান্তি পাবেন এক গ্লাস ঠাণ্ডা লাচ্ছিতে। শুধু প্রশান্তিই নয়, আপনাকে এনে দিবে হিমশীতল প্রশান্তি। এবার হুট করে কোন মেহমান চলে আসলেও ঝক্কি ঝামেলা করতে হবে না। সহজেই আপনি এই দারুচিনি আপেলের লাচ্ছি দিয়ে মেহমানদারী করতে পারেন। লাচ্ছি অনেক প্রকার ও ফ্লেভারের হয়ে থাকে। বিভিন্ন ফ্লেভারের মধ্যে দারুচিনি আপেলের লাচ্ছি একটি। আপনি চাইলে ঘরে বসেই বানাতে পারেন এই সহজ লাচ্ছি।  এটা খুবই হেলদি এবং সুস্বাদু। তাই আজকে আপনাদের জানাব কি করে বানাতে হয় দারুচিনি আপেলের লাচ্ছি। উপকরণঃ ছোট আপেল= ২টি দারুচিনি গুঁড়া= ১/২ চা চামচ চিনি=১ টেবিল চামচ দই= ১ কাপ

দারুচিনি আপেলের সুস্বাদু লাচ্ছি তৈরির সহজ পদ্ধতি2020-05-27T12:36:32+06:00

ঘর বসেই সহজে ফুট বা সু স্প্রে বানাতে চান

অনেকক্ষণ জুতা পরে থাকার ফলে পা ঘেমে দূরগন্ধ সৃষ্টি হয়। ফলে অন্য জনের তো বটেই নিজেরও বিরক্তি হয়। বিশ্রী একটা অবস্তা সৃষ্টি হয়, মেজাজ বিগরে যায়। ধরুন আপনি সারা পরে অফিসের কাজ শেষ করে কোন পার্টি বা কথাও ঘুরতে গেলেন। বা আপনি বন্ধুদের সাথেই ঘুরতেই গেলেন। তখন যদি আরামের জন্য জুতা খুলেন ,আর খুলেই যদি আই বিশ্রী অবস্থায় পরেন? তাহলে আর কি আপনার পাশের বেক্তি তো নাক শিটকাবেই সাথে সাথে নিজের মেজাজ গরম হবে। আর তাই আই অবস্থা যাতে আর না হয় তাই ফুট স্প্রে বা সু স্প্রে ব্যাবহার করতে হবে।আর যদি জুতা পায়ে দেয়ার সময় দেখলেন যে ফুট স্প্রে বা সু স্প্রে শেষ? চিন্তার কোন কারন নেই? আপনি ঘরেই সহজে বানাতে পারবেন ফুট স্প্রে

ঘর বসেই সহজে ফুট বা সু স্প্রে বানাতে চান2020-05-06T13:08:22+06:00

আইশ্যাডো দিয়ে নতুন নতুন নেইলপলিশ বানাতে চান?

ঘরে বাহারি রঙ এর নেইলপলিশ থাকলেও হাতে দেয়ার সময় বা যখন যে রঙ এর লাগবে তা পাওয়া যায় না। আবার হুট করে একটা ড্রেস কিনে আনলেন কিন্তু তার সাথে মিলিয়ে নেইলপলিশ নেই। তাই কিভাবে এই সমস্যা সমাধান করবেন আজকে রইল তারই কিছু টিপস। নেইলপলিশ যা যা লাগবে নিজের পছন্দের রঙের আইশ্যাডো, ফানেল, প্লাস্টিক ব্যাগ, ক্লিয়ার নেইলপলিশ, রুটি বেলার বেলুন। কিভাবে বানাবেন প্রথম ধাপ নিজের পছন্দ মত কোন পুরানো অথবা নতুন আইশ্যাডো নিন। শ্যাডো যদি পাউডার হয় তাহলে তা গুঁড়া না করলেও চলবে। সলিড ব্লক হলে একটি প্লাস্টিক ব্যাগে ভরে রুটি বানানোর বেলুন দিয়ে গুঁড়ো করুন। দ্বিতীয় ধাপ যতক্ষণ পর্যন্ত ফাইন পাউডার না হয় ততক্ষণ গুঁড়া করতেই থাকুন। কোন রকম ছোট টুকরা বা গুঁড়া গুঁড়া যেন

আইশ্যাডো দিয়ে নতুন নতুন নেইলপলিশ বানাতে চান?2020-05-06T12:05:16+06:00

জিভে জল আসা মুরগীর কিমা দিয়ে পাঁচমিশালি সবজি

মুরগী খেতে কার না ভাল লাগে? ছেলে বুড়ো থেকে শুরু করে সবাই খেতে পছন্দ করে মুরগীর আইটেম। তাই মুরগীর আইটেমে যদি ভিন্ন তা থাকে তাহলে তো কথাই নেই। যে খাবে বা যে রান্না করে খাওয়াবে তাদের জন্য পোয়া ভার। তাই মুরগীর আইটেম সবসময় এক রকম রান্না না করে একটু ভিন্ন করলে কেমন হয়? অবশ্যই ভাল হয়। তাই মুরগীর আইটেমে ভিন্নতা আনতে আজকে আপনাদের জানাব কিভাবে মুরগীর কিমা দিয়ে পাঁচমিশালি সবজি রান্না করা যায়। সবজি খাওয়া ভাল কিন্তু কেউই সহজে খেতে চায় না। অসহ্য লাগে খেতে।  তাই আপনি সহজেই এক ঢিলে দুই পাখি মারতে পারেন। শব্জিও খাওয়া হবে আবার মুরগিও খাওয়া হবে এক সাথে। আর আপনাকে দুই আইটেম রান্নাও করতে হবে না। আপনার সময় কম লাগবে।

জিভে জল আসা মুরগীর কিমা দিয়ে পাঁচমিশালি সবজি2020-05-06T01:09:18+06:00

রমজান স্পেশাল মজাদার মুরগীর কিমা পোলাও

সারা দিন রোযা থেকে ইফতারিতে একটু কম মশলা যুক্ত খাবার চাই। আবার একটু কম মশলার ভিতরেও একটু মশলা যুক্ত আর মুখরোচক চাই। তাই এই দুই এর মিশেলে দারায় একটু চাল এর ভিতরের আইটেম বা খবার। তাই কিমা পোলাও হতে পারে এর সহজ সমাধান। কারন এতে চাল, মশলা, চিকেন সবই আছে। আর মুখরোচক তো বটেই। কিমা পোলাও তৈরি করতেও সহজ । বেশি ঝক্কি ঝামেলা পোহাতে হয় না। সময়ও অন্যান্য আইটেমের থেকে কম লাগে। কারন এতে আলাদা করে তরকারীর আইটেম না করলেও চলে। খেতেও অন্যান্য রেসিপি থেকে ভিন্ন হওয়ায় ছোট বড় সবাই খেতে পছন্দ করে। তাই চলুন জেনে নেয়া যাক  কিভাবে মুরগীর কিমা পোলাও রান্না করা যায়। মুরগীর কিমা পোলাও তৈরির পদ্ধতি উপকরনঃ পোলাও চাল =২ কাপ

রমজান স্পেশাল মজাদার মুরগীর কিমা পোলাও2020-05-06T00:39:51+06:00

কম সময়ের মজাদার জাফরানি পোলাও এর রেসিপি

পোলাও হচ্ছে চাল দিয়ে তৈরি মশলাযুক্ত মজাদার খাবার। চালকে মসলা দিয়ে ভেজে এর স্বাদ বিভিন্ন ভাবে বিভিন্ন রকমের করা হয়। অঞ্চল ভেদে, মানুষের রুচির ভেদে এর রকম আলাদা হয়। তেমনি আজকে জানব এক ভিন্ন পদের পোলাও। মজাদার জাফরানি পোলাও। খুব সহজেই অল্প আয়োজনেই রান্না করা যায় এই পোলাও। যা আপনার গতানুগতিক পোলাও এর স্বাদ এর থেকে ভিন্ন।যা আপনার রান্না করেও তিপ্তি পাবেন, খেয়েও পাবেন। তাই আজকের রেসিপি মজাদার জাফরানি পোলাও। চলুন জেনে নেয়া যাক কিভাবে তৈরি করতে হয় মজাদার জাফরানি পোলাও।   মজাদার জাফরানি পোলাও তৈরির পদ্ধতিঃ উপকরণ পোলাও এর চাল =৪ কাপ ঘি =১/২ কাপ পেঁয়াজ কুঁচি= ২ টেবিল চামচ দারচিনি টুকরা= কয়েকটা এলাচ =৪ টি লবঙ্গ =২ টি আদা বাটা =২ চা চামচ

কম সময়ের মজাদার জাফরানি পোলাও এর রেসিপি2020-05-01T13:17:40+06:00

ভিন্ন স্বাদের মিষ্টি কুমড়ার আচারি ও সহজ রেসিপি

মিষ্টি কুমড়া যেকোনো কিছু দিয়েই খেতে ভাল লাগে। তা যাই হোক ভাত বা রুটি। মিষ্টি কুমড়ায় বিভিন্ন পুষ্টি উপাদান আছে। ভিটামিন এ, ভিটামিন ই, আয়রনসহ আরও নানা পুষ্টিগুণ আছে। মিষ্টি কুমড়া সারা মাসব্যাপী একটি সবজি। এটা যেমন সারা বছর পাওয়া যায় তেমনি মানুষ খেতেও পারে। মিষ্টি কুমড়া আমরা সব সময় ভাজি, ভর্তা , ঝোল বা তরকারি হিসাবে খাই মাছের সাথে। কিন্তু আজকে জানব ভিন্ন রকমের এক আইটেম, মিষ্টি কুমড়ার আচারি। সারা দেশের এই লকডাউনে বাহিরে চলাচল স্বাভাবিক নয়। তাই আপনি সবজি হিসাবে এটা কিনে অন্যান্য সব্জির তুলনায় বেশি দিন সংরক্ষন রাখতে পারবেন। সহজে সবজির চাহিদাও পূরণ করতে পারবেন। আবার মিষ্টি কুমড়ার দামটাও হাতের নাগালের মধ্যেই থাকে। তাই এই রমযানে হতে পারে আপনার রাতে বা বিশেষ

ভিন্ন স্বাদের মিষ্টি কুমড়ার আচারি ও সহজ রেসিপি2020-04-30T13:03:00+06:00

করোনা ভাইরাস কি শুধু জামা কাপড়েই আর হাতে আটকায়?

করোনা ভাইরাস কি শুধু জামা কাপড়েই আর হাতে আটকায়? আমরা সবাই জানি যে,তিন থেকে চার ফুট দূরে থাকলে ভাইরাস গায়ে লাগে না। ছয় ফুট দূরে থাকলে হাঁচি কাশির মাধ্যমে ভাইরাস ছরায় না। শুধু কি এইটুকুই সাবধানতা অবলম্বন করলেই করোনা ভাইরাস থেকে দূরে থাকা যাবে? যাবে না। করোনা ভাইরাস থেকে দূরে থাকতে হলে বা মুক্ত থাকতে হলে লাগবে পরিপূর্ণ সাবধানতা। তাই আমাদের আগে জানতে হবে করোনা ভাইরাস কোন কোন মাধ্যমে ছড়ায়। সারা দেশে এখন লকডাউন চলছে। কিন্তু আমরা কি লকডাউন পুরোপুরি ভাবে মেনে চলি বা চলতে পারি? পারি না। কারন আমাদের কোন না কোন খুব দরকারি কাজের জন্য বাহিরে যেতে হয়। জরুরি ওষুধ পত্র আনার জন্য হলেও বাহিরে যেতে হয়।সব বাজার এক সাথে করা যায় না।

করোনা ভাইরাস কি শুধু জামা কাপড়েই আর হাতে আটকায়?2020-04-26T12:24:00+06:00

পেটের মেদ কমানোর সহজ ও কার্যকরী উপায়

আমরা আদাজল খেয়ে, কোমর বেঁধে নেমে পরি ডায়েট করার জন্য। নিজেকে ফিট করতে, নিজেকে মেদহিন করার জন্য। শুরু করে দেই ব্যায়াম করে মেদহিন পেট পাওয়ার জন্য।খুব দ্রুত মুটিয়ে যাওয়া পেটকে এক নিমিষে শেষ করতে চাই। পড়াশোনা, চাকরি ,সংসার সামলানোর কাজে বেস্ত থাকায় নিজেদের প্রতি খেয়াল করার সময় হয়েও হয়ে উঠে না। পুরনো কাপড় পরতে গেলে বা পছন্দের কাপড় কিনতে গেলে আর পরাও হয় না কিনাও হয় না। কারন ঐ একটাই, মেদযুক্ত বড় পেট। পেট আর আগের মত নেই, তখনি যত বিপদ ঘটে। তখন না পারা যায় হটাত করে পেট কমানো বা পসন্দের ঐ কাপড় পড়া বা কিনা। তখনি নেমে পরি আলাদিনের চেরাগের জাদুর মত নানান কৌশলের মাধ্যমে পেট কমাতে। কিন্তু আমাদের এটা মাথায় রাখতে হবে

পেটের মেদ কমানোর সহজ ও কার্যকরী উপায়2020-04-22T13:26:14+06:00

বেস্ত গৃহিণীদের ফিট থাকার দারুন ও সহজ উপায়

সংসার সামলাতে গিয়ে নিজের যত্ন একেবারেই নেয়া হয়ে উঠে না। তাই ঘরে বসে কিভাবে নিজেকে ফিট রাখা যায় তা নিয়ে শুরু হয় চিন্তা। সারাদিন বাসায় থেকে থেকে গৃহিণীদের ফিট থাকাএবং সুস্থ্য থাকা কঠিনই বটে।কারন রান্নাঘর থেকে শুরু করে বাসার কমবেশি সবকিছুই একজন গৃহিণীকেই সামলাতে হয়। আর তাই সংসার সামলাতে গিয়ে নিজের দিকে খেয়াল রাখা কিংবা নিজেকে ফিট রাখা হয়ে হয়ে করেও হয়ে উঠে না। কিন্তু গৃহিণীরা চাইলেই একটু সময় বের করে ফিট এবং সুস্থ্য থাকার উপায় বের করতে পারবেন। খুব ছোট ছোট উপায় বের করে সহজেই ফিট থাকা যায় যা জেনেও আমাদের অজানা থাকে। আর এই সহজ উপায় হতে পারে কিছু সাধারন জিনিস এর পরিবর্তন , খাদ্যাভাসে একটু পরিবর্তন , ডায়েট প্ল্যান এর মাধ্যমে আপনি

বেস্ত গৃহিণীদের ফিট থাকার দারুন ও সহজ উপায়2020-04-22T00:40:03+06:00

এক টাকায় ৮০ বার হাত জীবাণুমুক্ত করার উপায়

এক টাকায় ৮০ বার হাত জীবাণুমুক্ত করার এমনি উপায় বের করেছেন আইসিডিডিআরবি। চীনের হুবেই প্রদেশের রাজধানী উহান থেকে ছড়িয়ে পড়েছে করোনা ভাইরাস। যা আস্তে আস্তে সব দেশেই সরাচ্ছে। এবং এটা দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পরে বড় রকমের মহামারির আকার নিচ্ছে। এটার ভ্যাকসিন এখনও বের না হওয়ায় এটা নিয়ে আতঙ্ক দিন দিন বেরেই যাচ্ছে। তাই বেশি বেশি সতর্ক থাকতে বলা হচ্ছে ও নির্দিষ্ট দূরত্ব বজায় রাখতে বলা হচ্ছে। নিয়মিত হাত পরিস্কার রাখতে বলা হচ্ছে। কারন হাতের মাধ্যমেই জিবানু বা ভাইরাস বেশি ছড়িয়ে থাকে। হাতের মাধমেই নাক কান চোখ এর সংস্পর্শ হয়। যার ফলে করোনা হওয়ার আসঙ্কা থাকে। আর তাই ডাক্তার বা বিশেষজ্ঞরা বার বার দূরত্ব বজায় রাখতে বলছেন। হাত সব সময় পরিষ্কার রাখতে বলছেন। হাতে হ্যান্ডগ্লভস পরতে বলছেন।

এক টাকায় ৮০ বার হাত জীবাণুমুক্ত করার উপায়2020-04-18T23:55:18+06:00

টাকা লেনদেনের সময় ভাইরাস মুক্ত থাকার উপায়

চীনের হুবেই প্রদেশের রাজধানী উহান থেকে ছড়িয়ে পড়া করোনা ভাইরাস অনেক দেশেই ছড়িয়ে পড়েছে। "কভিড-১৯" বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার দেওয়া করোনা ভাইরাস ডিজিজ-২০১৯ এর অফিশিয়াল নাম।বিভিন্ন ভাবে এই ভাইরাস চারিদিকে দিনে দিনে ছড়িয়ে পরছে এবং মহামারিতে রুপ নিচ্ছে। এই ভাইরাস বিভিন্ন ভাবে ছড়িয়ে পড়েছে বিভিন্ন ভাবে, যেমনঃ সংস্পর্শের মাধ্যমে,হাঁচি, কাশি, লালা বা থুতু,হাঁচি, কাশি, লালা বা থুতু, আক্রান্ত রোগীর চিকিৎসার সময়, টাকা লেনদেনের সময় ও আরও অনেক ভাবে। টাকার মাধ্যমে কিভাবে ভাইরাস ছড়ায় ও কিভাবে এর সংক্রমণ এরিয়ে চলবেন তা জানাবো। ব্যাংক নোট বা টাকায় বা মুদ্রায় নানা ধরণের জীবাণুর উপস্থিতি নতুন কিছু নয়। এমনকি ব্যাংক নোটের মাধ্যমে ভাইরাস সংক্রামক নানা রোগ ছড়িয়ে পড়ার কথাও বলেন বিশেষজ্ঞরা।যেমনঃ বাংলাদেশের একদল গবেষক গত বছরের অগাস্ট মাসে বলেছিলেন যে,

টাকা লেনদেনের সময় ভাইরাস মুক্ত থাকার উপায়2020-04-16T23:03:30+06:00

মাস্ক কিভাবে ব্যাবহার করে ভাইরাস ঠেকানো যায়?

মাস্ক পরে কি ভাইরাস ঠেকানো যায়? ভাইরাস সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়া বা যেকোনো খবরের জন্য মাস্ক বা মুখোশ পরা কোন মানুষের মুখচ্ছবি হতে পারে সহজ উপায়।বিশ্বের সব দেশেই সংক্রমণ ঠেকানোর জন্য জনপ্রিয় ব্যবস্থা হচ্ছে মাস্ক বা মুখোশ এর ব্যবহার।যা খুব সহজেই ভাইরাস এর সংক্রমণ ঠেকানো না গেলেও লাঘব করা যায়। বিশেষ করে চীনে অর্থাৎ যেখান থেকে শুরু হয়েছে করোনাভাইরাস, সেখানেও মানুষ বায়ু দূষণের হাত থেকে বাঁচতে হরহামেশা নাক আর মুখ ঢাকতে মুখোশ পরে ঘুরে বেড়ায়।ভাইরোলজিস্ট অর্থাৎ যারা ভাইরাস বিশেষজ্ঞ তারা যথেষ্টই সংশয়ে আছেন যে, বায়ুবাহিত ভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে এই মাস্ক কতটা কার্যকর সে ব্যাপারে। আসলেই কি মাস্ক পরে ভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকানো যায়? তবে ভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকানো না গেলেও এর হাত থেকে মুখে সংক্রমণ ঠেকাতে এই মাস্ক

মাস্ক কিভাবে ব্যাবহার করে ভাইরাস ঠেকানো যায়?2020-04-15T21:47:26+06:00

এই কুরবানি ঈদের বিশেষ রেসিপি পর্দা পোলাও

পর্দা পোলাও হতে পারে এই ঈদের ভিন্নমাত্রার বিশেষ কিছু। কুরবানির এই ঈদে সবাই চায় মাংস একটু ভিন্ন ভিন্ন ভাবে স্বাদ নিতে। তাই আপনি চাইলেই খুব সহজেই পারবেন এই পর্দা পোলাও রান্না করতে এই সহজ রেসিপিএর সাথে। বাসায় মেহমান এলে বা নিজেদেরি জন্য হতে পারে সাধারনের ভিতরে অসাধারান কিছু। চলুন দেখে নেই পর্দা পোলাওয়ের সহজ রেসিপি- পর্দা বিরিয়ানি উপকরণ: মাংস রান্নার উপকরনঃ গরুর মাংস =২ কেজি, বিরিয়ানি মসলা =৩ টেবিল চামচ, আদার রস =সিকি কাপ, রসুনের রস= সিকি কাপ, এলাচি =২টি, দারুচিনি =২ টুকরা, বড় এলাচি =২টি, স্টার অ্যানিস =১টি, লবঙ্গ =৩-৪টি, শাহি জিরা =আধা চা-চামচ, ঘি ও তেল =আধা কাপ, টক দই =আধা কাপ, পেঁয়াজ বেরেস্তা =আধা কাপ, পেঁয়াজকুচি =আধা কাপ, আস্ত কাঁচা মরিচ =১০–১২টি

এই কুরবানি ঈদের বিশেষ রেসিপি পর্দা পোলাও2019-08-08T21:10:42+06:00

ঈদের মজাদার ভিন্ন স্বাদের কাশ্মিরি পোলাও

কাশ্মীরি পোলাও পোলাও আমাদের সবারই পছন্দ। কোন একটা উপলক্ষ পেলেই, সবাই চাই খাবার এ একটু ভিন্নমাত্রা দিতে পোলাও রান্না করে। কিন্তু সেই পোলাও এই যদি আর একটু ভিন্নমাত্রা আনা যায় কমন হবে? অবশ্যই ভাল কিছু হবে। নতুনত্ব আসবে খাবারে, খেতেও একটা নতুনত্ব আসবে। আর সেই নতুনত্ব যদি হয় কাশ্মীরি পোলাও ? তাহলে তো কথাই নেই। অতিথি আপ্যায়ন বা বিশেষ দিনে, কাশ্মিরি পোলাও এনে দিবে খাবারের ভিন্ন স্বাদ এবং মজাদার অনুভুতি।  আর আসছে কোরবানির ঈদে এটা হতে পারে পুরনো স্বাদেই নতুন কিছু। চলুন তাহলে জেনে নেয়া যাক, কিভাবে রান্না করতে হয় মজাদার ভিন্ন স্বাদ এর- কাশ্মিরি পোলাও। উপকরণঃ পোলাওয়ের চাল =২ কাপ, ঘি =আধা কাপ, নারকেল দুধ =১ কাপ, গুঁড়া দুধ =২ টেবিল চামচ, আদাবাটা =১

ঈদের মজাদার ভিন্ন স্বাদের কাশ্মিরি পোলাও2019-08-01T17:31:09+06:00

সাজগোজের ফ্যাশন বা স্টাইল এর পূর্ণতায় চাই ঘড়ি

ঘড়ি জীবন চলার পথের অন্যতম অনুষঙ্গ। সময়ের বিবর্তনে এর ফলে জায়গা দখল করেছে মুঠোফোন। তাই ঘড়ির অবস্থান এখন প্রয়োজনের চেয়ে বেশি ফ্যাশনে।প্রয়োজনের সঙ্গে ফ্যাশনের কথা মাথায় রেখে তরুণ-তরুণী অর্থাৎ তরুন প্রজন্মের সবার কাছেই হাতঘড়ির ব্যবহারে পরিবর্তন এসেছে। বাজার ঘুরলে দেখা যায় ঘড়িগুলোতে ডায়াল ও চেনে এসেছে ভিন্নতা। তবে তরুণদের কাছে সব সময় ব্র্যান্ডের ঘড়িগুলোই সবসময় চাহিদার শীর্ষে থাকে। কারণ এগুলো যেমন দেখতে ফ্যাশনেবল, তেমনি টেকেও অনেক দিন। কার জন্য কেমন ঘড়ি আপনি প্রথমেই ঠিক করুন কোন ধরনের ঘড়ি ব্যবহার করতে চান। বাজারে আছে ব্যাটারিচালিত কোয়ার্টজ মুভমেন্ট ঘড়ি ও মেকানিজম মুভমেন্ট ঘড়ি। এর বাইরেও ডিজিটাল ঘড়ি আছে, এতে আছে প্রযুক্তির সব সুবিধা। আবার কোয়ার্টজ মুভমেন্টে ঘড়ি প্রতি সেকেন্ডে কয়েক হাজারবার ভাইব্রেশন দিয়ে থাকে। এই ঘড়ির ব্যাটারি

সাজগোজের ফ্যাশন বা স্টাইল এর পূর্ণতায় চাই ঘড়ি2019-07-18T17:45:21+06:00

ইদ স্পেসিয়াল মজাদার শাহজাহানি বিরিয়ানি

যাঁরা ভালোবাসেন রান্না করতে, খাওয়াতে এবং নতুন খাবার চেখে দেখতে।তাদের জন্য হতে পারে একটু ভিন্ন স্বাদের শাহজাহানি বিরিয়ানি।শাহজাহানি বিরিয়ানি খেতে ইচ্ছা হলেও না জানার ফলে বা জানলেও ঘাবড়ানোর ফলে রান্না করা হয় না। তাই তাদের জন্য এই সহজ রেসিপি। শাহজাহানি বিরিয়ানি উপকরণ খাসির সামনের রান ১ কেজি, জাফরান আধা টেবিল চামচ, বাসমতী চাল ৫০০ গ্রাম বা ২ কাপ, টকদই আধা কাপ, ঘি ১ কাপ, পেঁয়াজ স্লাইস ১ কাপ, কাজুবাদাম সিকি কাপ, পেস্তা কুচি সিকি কাপ, কাঠবাদাম কুচি সিকি কাপ, কিশমিশ সিকি কাপ, তিল ৫ টেবিল চামচ, কোরানো নারকেল ৫ টেবিল চামচ, আদা (মিহি ঝুরি) ১ টেবিল চামচ, রসুন কুচি ১ চা-চামচ, জিরা ১ চা-চামচ, লালমরিচের গুঁড়া আধা চা-চামচ, এলাচি ৪টি, দারুচিনি ১ ইঞ্চির ৪ টুকরা,

ইদ স্পেসিয়াল মজাদার শাহজাহানি বিরিয়ানি2019-06-06T23:20:15+06:00