বাদাম ও ছোলা দুইটাই খুব পরিচিত খাবার। পুষ্টিকর গুণাগুণের দিক থেকে অনেক কিছুর মধ্যে মিল রয়েছে বাদাম ও ছোলায়।
এই পর্বে বাদাম ও ছোলা বিষয়ে কিছু টিপস দেবো ।আপনি যদি টিপস গুলো গ্রহণ করেন তাহলে আপনার শরীরের পুষ্টিগুণ বেড়ে যাবে।

বাদাম

আপনি কি বেশি লবন খান ? তাহলে  আজ থেকে প্রতিদিন বাদাম খাওয়ার  অভ্যাস গড়ে তুলুন কারণ আপনাকে কম লবণ খাওয়ার সহায়তা করবে। সাধারণত মসলা যুক্ত মজার স্ন্যাকসে লবণের পরিমান অতিবেশি থাকে।মসলা যুক্ত বাদামে যে পরিমান লবন থাকে, ঠিক সেই পরিমান এর চেয়ে এক কেজি স্নাকস্  এর তার চেয়ে বেশি লবন থাকে। এই দিক বিবেচনা করে আপনি যদি স্নাকস্-এর পরিবর্তে বিকল্প হিসেবে বাদাম খান, সেটা আপনার শরীরে অতিরিক্ত লবন জনিত রক্তচাপ কমাতে বেশ সাহায্য করতে পারে। এছাড়া বাদাম একটি প্রোটিনযুক্ত খাবার ।বাদামে আঁশ ও প্রোটিন প্রচুর পরিমাণে আছে। প্রোটিনের দিক থেকে দ্বিতীয় স্থানে অবস্থান করছে। এছাড়া প্রচুর ফ্যাটও আছে । এই ফ্যাট শরীরের জন্য অনেক ভালো কারণ ফ্রাটে ভিটামিন ই থাকে। যাদের চুল পড়ে যায়  এবং ত্বক শুষ্ক থাকে তাঁদের জন্য বাদাম খুব ভালো।

ছোলা

স্বাস্থ্যকর খাবার হিসাবে ছোলার বেশ সুনাম। এটা খুব মুখরোচক এবং স্বাস্থ্যকর । পেটেও অনেকক্ষণ থাকে । সাধারণত ২ প্রকারের ছোলা পাওয়া যায়। দেশী ছোলা ও কাবুলী ছোলা ।
দেশী ছোলা আকারে কিছুটা ছোট, একটু কালচে রং আছে এবং অপেক্ষাকৃত শক্ত । কাবুলী ছোলা আকারে একটু বড়, রং একটু উজ্জ্বল এবং দেশী ছোলার চেয়ে একটু নরম। দেশী ছোলা এই উপমহাদেশের মধ্যে পাওয়া যায়। আর কাবুলী ছোলা জন্মায় আফগানিস্তান, দক্ষিণ ইউরোপ এর মধ্যে।

ছোলা অনেক পুষ্টিকর। এটি আমিষের একটি উল্লেখযোগ্য উৎস খাবার। ছোলায় আমিষের পরিমাণ মাংস বা মাছের আমিষের পরিমাণের প্রায় সমান থাকে । তাই খাদ্য তালিকায় ছোলা থাকলে মাছ মাংস পরিমানে কম থাকলেও সমস্যা নেই। আমাদের  উন্নয়নশীল দেশে ছোলাকে মাছ বা মাংসের বিকল্প হিসাবেও ভাবা যেতে পারে কারণ ছোলার ডাল, তরকারিতে ছোলা, সেদ্ধ ছোলা ভাজি, ছোলার বেসন- নানান উপায়ে ছোলা খাওয়া যায়।

ছোলাও প্রোটিনযুক্ত একটি খাবার। বাদামের মতো ছোলাতে থাকা এই প্রোটিন দ্বিতীয় স্থানে অবস্থান করছে।ছোলা অবশ্য দুই ধরনের হয়ে থাকে। একটি খোসা যুক্ত আরেকটি খোসা মুক্ত। এর মধ্যে খোসাযুক্ত ছোলা বেশি ভালো। খোসাযুক্ত ছোলার মধ্যে ভিটামিন, আঁশ, প্রোটিন—তিনটিই থাকে। তবে বাদামের তুলনায় এতে ফ্যাট কম থাকে।
যাঁরা ওজন কমানো ও পেশি সুষম গঠন করতে চায়, তাঁদের জন্য খাবার হিসেবে ছোলা অনেক ভালো। কাঁচা, সেদ্ধ ও রান্না—তিনভাবেই খাওয়া যায় । এর মধ্যে কাঁচা ছোলায় ভিটামিন বি সবচেয়ে বেশি থাকে। যেটি শরীরের জন্য অনেক ভালো।

 

অপকারিতা

২৫-৩০ গ্রাম বাদাম ও ছোলা এর মধ্যে প্রায় ১০০ ক্যালরি থাকে।প্রতিদিন বেশি খেলে শরীরের ওজন বেড়ে যাবে।অন্যদিকে বাদামেও প্রায় সমান পরিমাণে ক্যালরি থাকে। যার ফলে বাদামও অতিরিক্ত খেলে ওজন বেড়ে যায়।