আপনি আপনার নিজের ত্বকের যত্ন নিজেই নিতে পারবেন খুব সহজেই। নিচের এই গুরুত্বপূর্ণ টিপস গুলো অনুসরণ করুন এবং নিজে নিজেই এর সুফল ভোগ করুন।  এই টিপস গুলো শুধু মেয়েদের জন্যই প্রযোজ্য নয় চাইলে ছেলেরাও এই টিপস অনুসরণ করে সুফল ভোগ করতে পারবেন।

নিচের ২০টি টিপস ভালো করে পড়ুন

টিপস নং ১
যতটা সম্ভব হয় আপনার ত্বককে রোদ থেকে বাচিয়ে রাখুন। রোদে বের হলে অবশ্যই ছাতা ও সানগ্লাস ব্যবহার করুনা। এছারা সানস্ক্রিন ব্যবহার করতে পারেন।

টিপস নং ২
আপনি যদি সুইমিং পুল, সমুদ্রের পাড়ে বা বরফ আছে এমন জায়গায় যেতে চান তাহলে অবশ্যই সান স্ক্রিন ব্যাবহার করবেন। কারণ পানি বা বরফে এর মাধ্যমে সূর্যরশ্মি বেশি প্রফলিত হয় যার ফলে ত্বক নষ্ট হয়ে যায়।

টিপস নং ৩
অনেকের দেখা যায় হাত, পায়ে কাল ও পোড়া দাগ আছে ।তবে চিন্তার কিছু নেই,কিছু পরিমান তিল বেটে অথবা গুড়ো করে তার মধ্যে সামান্য পানি মিশিয়ে ছেঁকে নিন এরপর একটা সাদা রঙের তরল পাবেন সেটা মুখে লাগান, বিশেষ করে রোদে পোড়া জায়গায় লাগাবেন।

টিপস নং ৪
ত্বকের রং আরও উজ্জ্বল করার জন্য ত্বকে দই লাগিয়ে প্রায় বিশ মিনিট রেখে দিন তারপরে ধুয়ে ফেলুন। এভাবে সপ্তাহে তিন থেকে চারদিন লাহাবেন।

টিপস নং ৫
নিয়মিত দুধ দিয়ে মুখ ধুয়ে পরিষ্কার রাখলে ত্বক ফর্সা হয়।

টিপস নং ৬
যদি আপনার তেলাক্ত মুখ হয় তা হলে ত্বক আরো উজ্জল ও ফর্সা করার জন্য নিচের পদ্ধতি ব্যাবহার করবেন।
প্রথমে লেবুর রস ও ডিমের সাদা অংশ সম পরিমাণে মিশিয়ে তা মুখে লাগিয়ে রাখুন প্রায় বিশ মিনিট তারপর ধুয়ে ফেলুন।

টিপস নং ৭
আপনার সারা গায়ের রং আরও উজ্জল করতে বেসন, দই আর সামান্য হলুদ মিশিয়ে মিশ্রণ তৈরি করে গোসলের সময় সাবানের পরিবর্তে এটি ব্যবহার করুন ।

টিপস নং ৮

অনেক সময় দেখা যায় হাত, পা, হাঁটু, কনুই খুব কালো হয়ে আছে। এ ক্ষেত্রে আপনার করনই আধা কাপ পেঁপের শাঁস, এক চামচ তরমুজের রস, এক চামচ লেবুর রস, অর্ধেক ডিমের সাদা অংশ আর এক-চামচ মধু একসঙ্গে মিশিয়ে যেখানে প্রয়োজন এই মিশ্রণটি লাগান ।এরপর শুখানো পর্যন্ত অপেক্ষা করে ধুয়ে ফেলুন।

টিপস নং ৯
যদি আপনার ত্বক খুব শুষ্ক হয় তাহলে দু চা চামচ কাঁচা দুধ ও দু চা-চামচ আলুর রস এক সাথে করে ঠান্ডা করুন তারপর এটি ব্যবহার করুন একদম ক্লেনজার হিসাবে।

টিপস নং ১০
আধা টুকরা করা পাকা কলা নিন এরপর ভাল ভাবে চটকে এর মধ্যে কয়েক ফোঁটা শসার রস মিশান। তারপর মুখে লাগিয়ে প্রায় আধা ঘন্টার মত রেখে ঠান্তা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

টিপস নং ১১
যাদের ত্বক অনেক শুষ্ক তাঁরা এক চা-চামচ লাল মুসূর এর ডাল গুড়া করে রাতভর দুধে মধ্যে ভিজিয়ে রাখুন তারপর মুখে ও গলায় মাখিয়েপ্রায় বিশ মিনিট রেখে ধুয়ে ফেলুন।

টিপস নং ১২
মেওয়া আর দুধ একসঙ্গে সুন্দর করে বেটে নিন। প্রতিদিন দুই মিনিট করে এই মিশ্রণ মুখে ও গায়ে মাখিয়ে রাখুন। তারপর ধুয়ে ফেলুন ঠাণ্ডা পানিতে।

টিপস নং ১৩
আপনার সারা গায়ের ত্বক আরও উজ্জল করতে বেসন ও খাঁটি সরিষার তেল একসঙ্গে মিশিয়ে গসলের আগে সারা শরীরে মেখে নিন। তারপর মাখানো আবস্থায় প্রায় আধ ঘন্টা শুখিয়ে গোসল করে ফেলুন।

টিপস নং ১৪
একটানা প্রায় ১৫ দিন এক চিমটে জাফরান ও কাঁচা দুধে মিশিয়ে মুখে লাগান প্রত্যেকদিন তারপর ফলাফল দেখুন।

টিপস নং ১৫
যাঁদের ত্বক তৈলাক্ত তাঁরা মুগের ডাল গুড়ো করে সামান্য পানিতে ভিজিয়ে প্রত্যেক সপ্তাহে একদিন করে মুখ স্ক্রাব করুন কারণ ত্বকের উপরে মরে যাওয়া কোষের পরত জমে মুখের ত্বক অনেক কালো দেখায়।

টিপস নং ১৬
তৈলাক্ত ত্বকের অধিকারীরা আরও একটি ভিন্ন ভাবে ফর্সা হতে পারেন। আপনার করনি প্রথমে এক চা-চামচ কমলালেবুর শুকনো খোসা গুড়ো, এক চা-চামচ মেথি গুড়ো ও কমলালেবুর রস দিয়ে ভাল ভাবে মুখে মাখুন। এরপর পানি দিয়ে ভাল ভাবে ধুয়ে ফেলুন।

টিপস নং ১৭
মধু এর সাথে কয়েক ফোঁটা লেবুর রস মিশিয়ে মুখে ভাল ভাবে লাগিয়ে রাখুন প্রায় পনেরো মিনিট । মধু যখন আপনার ত্বককে উজ্জল করবে এবং লেবুর প্রাকৃতিক ভাবে ব্লিচিং গুন আপনার ত্বককে করবে আরও বেশি ফর্সা।

টিপস নং ১৮
আপনি লক্ষ্য করে থাকবেন যে,অনেক ফর্সা লোকেরও ঠোঁটের রং অনেকটা কালছে। তার জন্য নিরাশ হবার কিছু নাই। এর জন্য আপনার করনি, কয়েক ফোঁটা পাতিলেবুর রস, মধু ও মাসাজ ক্রীম মিশিয়ে দিনে কম করে হলেও দুই বার ঠোঁটে মাখবেন প্রায় মাস খানেক তারপর নিজেই সুফল দেকজতে পারবেন। তবে ব্যবহারটা নিয়মিত ভাবে করতে হবে। এভাবে চোখের নিচেরও কালচি ভাব দূর করতে পারবেন।

টিপস নং ১৯
আপনার হাতের কনুই, হাটু, পায়ের পাতার ত্বক কালো হলে খুব খারাপ দেখায় তাই না। এছারা কালো ছোপ পড়ে, চামড়া শক্ত হয়ে যায়। এই সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে দু-চমচ লবন, দু-চামচ চিনি আর এক চামচ খাবার সোডা একটা কাঁচের বোতলে ভরে ফ্রিজে রেখে দিন। তারপর প্রতিদিন পাতিলেবুর রস ও শসার রস বোতল থেকে অথবা মিশ্রণটি বের করে মিশিয়ে একটি প্যাক তৈরি করুন। এবার কালো হয়ে যাওয়া অংশে লাগিয়ে রাখুন প্রায় ২০ মিনিট। এরপর ভাল করে পানি দিয়ে ধুয়ে কিছু পরিমাণ ক্রিম দিয়ে মেসাজ করে নিন।

টিপস নং ২০
শুষ্ক ত্বকে এর ক্ষেত্রে চন্দন, মালাই আর সামান্য হলুদ এক সাথে মিশিয়ে মুখে লাগান। তাতে ত্বক উজ্জ্বল থেকে আরো উজ্জল এবং অনেক ফর্সা হবে।